আমাদের কমিউনিটিখবরটপ স্টোরিজ

টাওয়ার হ্যামলেটসের ল্যান্সবারী ওয়ার্ডের উপ-নির্বাচনে এসপায়ার প্রার্থী ওহিদ আহমদ

হাউজিং ফ্রডের অভিযোগে কাউন্সিলার পদ থেকে মুহাম্মদ হারুন পদত্যাগ করায় টাওয়ার হ্যামলেটসের ল্যান্সবারী ওয়ার্ডে উপ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে আগামী ৭ ফেব্রুয়ারী। এই নির্বাচনকে সামনে রেখে ইতমধ্যে প্রার্থীতা ঘোষনা করেছে এসপায়ার পার্টি। ল্যান্সবারী ওয়ার্ডে ৪ বারের নির্বাচিত সাবেক কাউন্সিলার ও ডেপুটি মেয়র ওহিদ আহমদকে প্রার্থীতা দিয়েছে দলটি। গত ২৯ ডিসেম্বর স্থানীয় ক্রিপসস্ট্রীট মার্কেটে এক অনাঢ়ম্বর আয়োজনের মধ্য দিয়ে তার প্রার্থীতা ঘোষনা করেন এসপায়ার পার্টির জেনারেল সেক্রেটারী ও টাওয়ার হ্যামলেটস লেবার পার্টির সাবেক চেয়ার লিল কলিন্স।
এ সময় তিনি বলেন,ওহিদ আহমদ ল্যান্সবারী ওয়ার্ডের বাসিন্দাদের পরীক্ষিত বন্ধু। তিনি অতীতে বার বার বিপুল ভোটের ব্যবধানে নির্বাচিত হয়েছেন। মানুষের কল্যানে তিনি অনেক কাজ করেছেন। সুখে দু:খে মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন। তার মতো মানুষ আবারো নির্বাচিত হওয়া উচিত। তিনি ওয়ার্ডের বাসিন্দাদের প্রতি আহবান জানান, তারা যেনো ওহিদ আহমদকে পূনরায় নির্বাচিত করেন।
পরে এসপায়ার পার্টির সদস্য ও স্থানীয় ওয়ার্ডের বিপুল সংখ্যক বাসিন্দা ও ব্যবসায়ীদের নিয়ে ক্রিপসস্ট্রীট মার্কেটে গনসংযোগ করেন ওহিদ আহমদ। তিনি এ সময় স্থানীয় ব্যবসায়ী এবং মাকের্টে আসা মানুষের মতামত গ্রহন করেন। মার্কেটের উন্নয়ন এবং ওয়ার্ডের বাসিন্দাদের কল্যানে আবারো কাজ করতে দৃঢ় প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেন ওহিদ আহমদ। তিনি বলেন, তার সময়ে ল্যান্সবারী ওয়ার্ডে যে ব্যাপক উন্নয়ন সাধিত হয়েছিলো, তা এখন পরিলক্ষিত হচ্ছেনা। ওয়ার্ডের জনগনের জন্য তার নির্বাচনী বিভিন্ন প্রতিশ্রুতি এ সময় তিনি তুলে ধরেন।
গনসংযোগকালে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, সাবেক কাউন্সিলার মাইয়ুম মিয়া, সাবেক কাউন্সিলার গোলাম কিবরিয়া চৌধুরী, এসপায়ার পার্টির ট্রেজারার জাহেদ চৌধুরী, সুমালী কমিউনিটি নেত্রী সারা ডিগলি, মরিয়ম হাসান, কমিউনিটি নেতা বাদশা মিয়া, গৌস উদ্দিন, জিলু মিয়া, রুনু মিয়া,মান্না ইসলাম, হাজী সানা, মাহবুব আলম, বদরুল চৌধুরী, হেলাল মিয়া, কবির হোসাইন, নজরুল ইসলাম, জয়নুল আবেদিন, মুজিবুর রহমান, শাহিন রশিদ, আতাউর রহমান সালেহ, লিলু মিয়া, আব্দুল আহাদ, বেলাল উদ্দিন আহমদ, আব্দুল মালিক ও মামুন আহমদ প্রমুখ।
উল্লেখ্য মাত্র সাত মাস আগে টাওয়ার হ্যামলেটসের ল্যান্সবারী ওয়ার্ড থেকে লেবার পার্টির হয়ে কাউন্সিলার নির্বাচিত হন মুহাম্মদ হারুন। তিনি পেশায় একজন সলিসিটর। তার বিরুদ্ধে হাউজিং ফ্রডের অভিযোগ তদন্ত করছে সলিসিটর রেগুলেশন অথরিটি সংক্ষেপে এসআরএ। এ জন্য তিনি কাউন্সিলার পদ থেকে গত সপ্তাহে পদত্যাগ করেন। মুহাম্মদ হারুন পদত্যাগ করায় ল্যান্সবারী ওয়ার্ডে উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে আগামী ৭ ফেব্রায়ারী। ওয়ার্ডের বাসিন্দাদের মধ্যে এখনো যারা ভোটার রেজিস্ট্রি করেননি, তাদেরকে আগামী ২২ জানুয়ারীর মধ্যে ভোটার তালিকায় অর্ন্তভুক্ত হতে আহবান জানানো হয়েছে।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Close