ফিচার

অদ্ভুত অভিজ্ঞতা!

মো: আরিফুর রহমান আরিফ: সেদিন কলেজ থেকে ফেরার সময় বন্ধুদের সাথে ফুড গ্যালারিতে গিয়েছিলাম কফি খেতে।যখনই রেস্টুরেন্ট এর ভিতরে ঢুকবো ঠিক তখনি ৩-৪ মাস বয়সী একটি বাচ্চা কুকুর আমার পায়ের সামনে এসে শুয়ে পড়লো। সেলস বয় তাকে লাথি দিয়ে সরিয়ে দিতে চাইলে আমি আটকালাম।তার পর ভিতরে যতক্ষণ ছিলাম কুকুরটি দরজার সামনেই শুয়ে ছিল।দোকানের লোক ভাচবলো হয়তো কুকুরটি আমার পোষা।যাই হউক খাওয়া শেষ করে ৪৫ মিনিট পর বের হলাম বেড়িয়ে দেখি কুকুরটি এখনো শুয়ে আছে।আমাকে দেখেই দৌড়ে আমার পা জড়িয়ে ধরলো তার দুটি ছোট ছোট বাহু দিয়ে।আমি যখন সিএনজি তে ঊঠতে যাব সে তখনই আমাকে বাধা দিচ্ছিল সাথের বন্ধুরা তাকে লাথি দিয়ে সড়িয়ে দিতে চাইলে আমি বাধা দিলাম।১৫ মিনিট তার সাথে খেলা করলাম। কতকিছুই না করলো তার কিছুক্ষিন পরে দেখলাম একটু আগে যে গাড়িটায় উঠতে গিয়েছিলাম সেটি অক্সিডেন্ট করেছে।আর নিচের দিকে তাকিয়ে কুকুর ছানাটি দেখলাম আমার পা ছেড়ে দিয়েছে।আমার আর বুঝিতে বাকি রইল না যে আমার সাথে ঠিক কি ঘটতে চলেছিল। পরে আরেকটি গাড়ি করে আমি চলে আসলাম।আসার সময় দেখি কুকুরটি আমার দিকে তাকিয়ে আছে।পরের দিন আবার কলেজে গেলাম গিয়ে দেখি সেই কুকুরটি আজও দাঁড়িয়ে আছে আমার জন্য কলেজ গেইটে। কুকুর ছানাটি আজও দাঁড়িয়ে আছে। সময় কুকুর ছানাটি আমার দিকে এক দৃষ্টিতে তাকিয়ে ছিল।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Close