আমাদের কমিউনিটিফিচার

নতুন প্রজন্মের একজন ইব্রাহিম রহমান এবং লন্ডন বাংলা প্রেস ক্লাব

ইব্রাহিম খলিল: ইব্রাহিম রহমান, আমাদের প্রেসক্লাব পরিবারের নতুন সদস্য। বৃটেনে জন্ম এবং বেড়ে উঠা। কাজ করেন ক্যাম্ব্রিজ রাইজ পত্রিকায়। বৃটিশ গনমাধ্যম আই টিভিতেও খন্ডকালীন কাজ করেছেন। নিয়মিত লেখালেখি করেন বিখ্যাত হাফিংটন পোস্টসহ মূলধারার গণমাধ্যমে।
সোশ্যাল মিডিয়ার সূত্রধরে তার সাথে আমার পরিচয়। এবার প্রেসক্লাবের সদস্য হতে তাঁকে অনুরোধ জানালে তিনি এক কথায় রাজি হয়ে যান। বললেন, অনলাইন টেলিভিশন এলবি২৪ এর সিইও শ্রদ্ধাভাজন শাহ ইউসুফ ভাইও নাকি তাকে এ ব্যাপারে অবহিত করেছেন। এলবি২৪ এর ইয়ুথ কর্নার নামে একটি অনুষ্ঠানের উপস্থাপক ইব্রাহিম রহমান।
যাই হোক তিনি এবার সদস্য হলেন- প্রথমবারের মতো ভোট দিলেন। ভোট শেষে বাসায় ফিরে টেক্স ম্যাসেজের মাধ্যমে আমাকে ধন্যবাদ জানান, তাকে ক্লাবে সম্পৃক্ত হওয়ার সুযোগ করে দেওয়া জন্য। আমাদের দ্বি-বার্ষিক সভার পুরো সময় বসে ক্লাব সর্ম্পকে অনেক জেনেছেন এবং ভালো লাগার কথাও জানান।
লন্ডন বাংলা প্রেসক্লাবের বয়স এখন ২৫ বছর। কিন্তুু দু:খজনক হচ্ছে আমাদের ক্লাবে হাতেগোনা কয়েকজন সদস্য আছেন, যারা এদেশে জন্ম নেওয়া বৃটিশ বাংলাদেশী। ক্লাবের সদ্য সাবেক এ্যাসিসটেন্ট সেক্রেটারী মুহাম্মদ সুবহান, সাবিয়া কামালী, ফটোগ্রাফার কয়েছ মিয়া ও খালিদ হোসাইন এই ক‘জন হচ্ছেন আমাদের সবেদন নীলমনি। বাকী আমরা সবাই বাংলাদেশ থেকে আসা। অথচ এদেশে জন্ম নেওয়া অনেক বৃটিশ বাংলাদেশী সন্তানরা কাজ করছেন বিবিসি, আইটিভি, ডেইলি মেইল, গার্ডিয়ানসহ মূলধারার বিখ্যাত গনমাধ্যমগুলোতে। ক্লাবে তাদেরকে অন্তভুক্ত করতে পারলে, আমরা অনেক কিছু জানা ও শিখার সুযোগ পেতাম। তাদের সূত্র ধরেই মেইনস্ট্রিমে এগিয়ে যেতে পারতাম। দু:খজনক হলো, এই সুযোগকে আমরা সঠিকভাবে কাজে লাগাতে পারছিনা। এবার সময় এসেছে, এই বিষয়গুলো নিয়ে নতুন করে চিন্তা ভাবনার।

ইব্রাহিম খলিল
ট্রেনিং এন্ড রিসার্চ সেক্রেটারী
লন্ডন বাংলা প্রেস ক্লাব।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Close