ইংল্যান্ডএডিটর্স পিকসখবরটপ স্টোরিজ

তৃতীয়বারের মতো সন্তান হারালেন শামীমা

আইএস বধূ শামীমা বেগমের দু’সপ্তাহ বয়সী ছেলে জেরাহ মারা গেছে, সে নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হয়েছিলো। সিরিয়ার ওই শরণার্থী শিবির পরিচালনাকারি এসডিএফ-এর সংশ্লিষ্ট গ্রুপটি শুক্রবার বাচ্চাটির মারা যাওয়ার খবর নিশ্চিত করে। লন্ডন থেকে ১৫ বছর বয়সে পালিয়ে আসা মেয়েটি চার বছরের সংসার জীবনে তৃতীয়বারের মতো সন্তান হারালেন। বিবিসি।

খবরটি প্রথমে জানান শামীমার আইনজীবী তাসনিম আকুঞ্জি। এক টুইট বার্তায় তিনি বলেন, ‘শামীমা বেগমের দু-সপ্তাহ বয়সী পুত্রসন্তানটির মৃত্যু হয়েছে।’ তবে পুরোপুরি নিশ্চিত ছিলেন না তাসনিম, বেশ কিছু সময় পর সিরিয়ান ডেমোক্রেটিক ফোর্সের (এসডিএফ) এক মুখপাত্র এ খবর নিশ্চিত করেন। এসডিএফ-এর তথ্য কর্মকর্তা জানান, শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যায় বাচ্চাটি অসুস্থ হয়ে পড়লে বৃহস্পতিবার সকালে হাসপাতালে নেয়া হয়। স্খনীয় সময় বেলা দেড়টায় মারা যায় শামীমার শিশুপুত্রটি। সিরিয়ার সরকার জেরাহ’র মৃত্যুতে শোকপ্রকাশ করেছে।

পূর্ব লন্ডনের বেথনাল গ্রিন এলাকার এক স্কুলের ছাত্রী শামীমা বেগম ২০১৫ সালে আইএস-এ যোগ দেয়ার উদ্দেশ্যে দুই বান্ধবীসহ তুরস্ক হয়ে সিরিয়ায় পালিয়ে যান। সেখানে তিনি ডাচ বংশোদ্ভূত এক জিহাদিকে বিয়ে করেন। গত ফেব্রুয়ারিতে ইসলামিক স্টেটের স্বঘোষিত খেলাফত যখন বিলুপ্তপ্রায়, তথন সিরিয়ার বাঘুজে এক শরণার্থী শিবিরে শামীমাকে খুঁজে পান দ্য টাইমস পত্রিকার এক সাংবাদিক।

শামীমা বেগম ব্রিটেনে ফিরে আসতে চেয়েছিলেন, কিন্তু ব্রিটিশ সরকার তার নাগরিকত্ব বাতিল করে। বিবিসিকে দেয়া সাক্ষাৎকারে শামীমা বেগম বলেছিলেন, তিনি আইএস-এর পোস্টার গার্ল হতে চাননি। তিনি শুধু চান যুক্তরাজ্যে সন্তানকে বড় করতে।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Close