ইংল্যান্ডএডিটর্স পিকসখবরটপ স্টোরিজ

বেড়েছে ব্রিটিশ পাউন্ডের বিনিময় দর

ব্রিটেনের ইউরোপিয় ইউনিয়ন ত্যাগের চুক্তি ব্রেক্সিটে শেষ মুহূর্তেও পরিবর্তন আসার খবরে বেড়েছে ব্রিটিশ পাউন্ডের বিনিময় দর। এই খবরে এশিয়ার প্রধান প্রধান পুঁজিবাজারের বিনিয়োগকারীদের উদ্বেগ কমে এবং বাজারের লেনদেন কিছুটা চাঙ্গা হয়ে ওঠে। রয়টার্স

এশিয় বাজারগুলোর ইতিবাচক লেনদেনের প্রভাবে প্যান-ইউরোপীয় স্টক্স ৬০০ বাজারের লেনদেন সূচক দশমিক ২ শতাংশ বাড়ে। গত সোমবার ব্রাসেলসে অবস্থিত ইউরোপীয় ইউনিয়নের সদর দফতর থেকে ব্রেক্সিট চুক্তির শর্ত পরিবর্তনের বিষয়ে ইতিবাচক ইঙ্গিত দেয়া হয়।

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে’র অনুরোধের প্রেক্ষিতে ইইউ বিদ্যমান ব্রেক্সিট চুক্তির বেশকিছু পরিবর্তনের ব্যাপারে সম্মতি দেয়। ইতোপূর্বে তারা কোন অবস্থাতেই ব্রেক্সিট চুক্তি পরিবর্তন করা সম্ভব নয় বলেই জানিয়েছিলো। তবে চুক্তিটির বেশকিছু ধারা নিয়ে ব্রিটিশ আইনপ্রনেতাদের তীব্র বাঁধার মুখে থেরেসা মে’র সরকার আপডেটেড ব্রেক্সিট চুক্তি অনুমোদনে ইইউ’র দ্বারস্থ হয়।

এদিকে গতকাল ব্রেক্সিটের খবরে ওয়াল স্ট্রীটের মার্কিন পুঁজিবাজারগুলোতেও লেনদেন বাড়ে। ব্রেক্সিটের সাম্প্রতিক খবরে এশিয়ার বৃহৎ দুই অর্থনীতি জাপান এবং চীনের শেয়ার বাজারে যে ইতিবাচক প্রভাব পড়ে তার প্রভাবেই মার্কিন বাজারের বিনিয়োগকারীরা এমন প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছেন।

এমএসসিআই সার্বিক সূচকে এদিন এশিয়া-প্যাসিফিক অঞ্চলে জাপানি পুঁজিবাজারের দর বাড়ে ১ শতাংশ। অন্যদিকে চীনের লাভজনক ব্লু-চীপ কো¤পানিগুলোর বাজারদর দশমিক ৭ শতাংশ পর্যন্ত বেড়েছে।

এদিকে গত মঙ্গলবার বিশ্ব মুদ্রাবাজারের লেনদেনে দেশটির ব্রিটিশ পাউন্ডের দর দশমিক বাড়ে ৫ শতাংশ। এদিন প্রতি পাউন্ডের বিপরীতে ১ দশমিক ৩২ ডলার কেনাবেচা হয়। গত দুদিনে মুদ্রাটি ২ দশমিক ৬ শতাংশ মূল্যবৃদ্ধি অর্জন করেছে।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Close