সোনার বাংলাদেশ

১৯ উপজেলার ৮৩৫ ভোটকেন্দ্র ঝুঁকিপূর্ণ

কাউসার চৌধুরী  আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে সিলেট ও মৌলভীবাজার জেলার ৮৩৫ ভোটকেন্দ্র ঝুঁকিপূর্ণ। দু’জেলার ১৯ উপজেলার নির্বাচনে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর প্রায় ২৫ হাজার সদস্য মাঠে থাকবেন। নির্বাচনে চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ ও মহিলা) পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ২৫৫ প্রার্থী। আগামীকাল সোমবার সিলেট ও মৌলভীবাজার জেলার ১৯ উপজেলায় উপজেলা পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। মহানগর পুলিশের উপ-কমিশনার (মিডিয়া) জেদান আল মুসা সিলেটের ডাককে বলেছেন, শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট গ্রহণের লক্ষ্যে জেদান আল মুসা সিলেটের ডাককে বলেছেন, শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট গ্রহণের লক্ষ্যে ইতোমধ্যে প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। (আজ) রোববার সকাল থেকেই তারা মাঠে নামবেন।
পুলিশ সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, সিলেট ও মৌলভীবাজার জেলার ১৯ উপজেলায় মোট ভোটকেন্দ্র ১ হাজার ৩৩৪টি। এর মধ্যে ঝুঁকিপূর্ণ ভোটকেন্দ্র ৮৩৫টি ও ৪৯৯টি হচ্ছে সাধারণ ভোটকেন্দ্র। সিলেট জেলার ১২ উপজেলার মধ্যে সিলেট সদর ও দক্ষিণ সুরমা উপজেলা সিলেট মহানগর পুলিশ এসএমপির আওতাভুক্ত। বাকি ১০ উপজেলা সিলেট জেলা পুলিশের আওতায়। এসএমপির ২ উপজেলায় ১৬৯ ভোটকেন্দ্রের মধ্যে ১২৫টি ভোটকেন্দ্র ঝুঁকিপূর্ণ। সিলেট সদর উপজেলার ৯১ ভোট কেন্দ্রের মধ্যে ৬৩ ভোট কেন্দ্র ঝুঁকিপূর্ণ এবং দক্ষিণ সুরমা উপজেলার ৭৮ ভোটকেন্দ্রের মধ্যে ৬২ ভোটকেন্দ্রই ঝুঁকিপূর্ণ।
সিলেট জেলার বাকি ১২ উপজেলায় ৬৪৭ ভোটকেন্দ্রের মধ্যে ঝুঁকিপূর্ণ ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ৪৫১টি। মৌলভীবাজার জেলার ৭ উপজেলায় মোট ভোটকেন্দ্র ৫১৮টি। এর মধ্যে ২৫৯টি ভোটকেন্দ্র ঝুঁকিপূর্ণ।
সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, এসএমপির দুই উপজেলায় থাকবে ২১টি স্ট্রাইকিং টিম। থাকবে ৪৪টি মোবাইল টিম। দেড় হাজারেরও বেশি পুলিশ সদস্য মাঠে থাকবেন। এছাড়াও ২ হাজার ২৮ জন আনসার সদস্য থাকবেন নির্বাচনী মাঠে। বিজিবি ও র‌্যাবের সদস্যরাও নির্বাচনী মাঠে থাকবেন।
সিলেট জেলা পুলিশের আওতায় ১২ উপজেলায় মোতায়েন করা হবে ২ হাজার ৬০০ পুলিশ সদস্য। থাকবেন বিজিবি’র ৪২৭ জন সদস্য, ১৩০ জন র‌্যাব সদস্য ও আনসার সদস্য ৯ হাজার ৭৮২ জন। এছাড়াও থাকবে ১৫টি স্ট্রাইকিং টিম ও ১০০টি মোবাইল টিম।
মৌলভীবাজার জেলার ৭ উপজেলায় থাকবেন পুলিশের ২ হাজার ৪০০ সদস্য। বিজিবি’র ২৮০ জন, র‌্যাবের ৫৭ জন ও আনসার সদস্য ৬ হাজার ২২৮ জন। ১২টি স্ট্রাইকিং টিম ও ও ৯০টি মোবাইল টিমের মাধ্যমে পুলিশের কর্মকর্তারা সার্বক্ষণিক মনিটরিংয়ে থাকবেন বলে সূত্র জানিয়েছে। পোশাকধারী এ সকল সদস্যদের বাইরে প্রত্যেক ভোট কেন্দ্রে সাদা পোশাকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা নিয়োজিত থাকবেন।
সংশ্লিষ্টরা জানান, সব মিলিয়ে ১৯ উপজেলায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর প্রায় ২৫ হাজার সদস্য নির্বাচনী মাঠে দায়িত্ব পালন করবেন। ঝুঁকিপূর্ণ ভোটকেন্দ্রে ৫ জন পুলিশ ও ১২ জন আনসার সদস্যসহ মোট থাকবেন ১৭ জন। সাধারণ ভোটকেন্দ্রে ৩ জন পুলিশ ও ১২ জন আনসার সদস্যসহ ১৫ জন থাকবেন। এছাড়াও যে কোনো ধরনের পরিস্থিতি মোকাবেলায় আর্মড পুলিশকে প্রস্তুত রাখা হয়েছে বলে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।
৫ম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ২য় ধাপে সিলেট ও মৌলভীবাজার জেলার ১৯ উপজেলা পরিষদের নির্বাচন আগামীকাল সোমবার অনুষ্ঠিত হবে। উপজেলা সমূহ হচ্ছে-সিলেটের সিলেট সদর, বিশ্বনাথ, ফেঞ্চুগঞ্জ, বালাগঞ্জ, কোম্পানীগঞ্জ, কানাইঘাট, গোয়াইনঘাট, জৈন্তাপুর, দক্ষিণ সুরমা, জকিগঞ্জ, গোলাপগঞ্জ ও বিয়ানীবাজার এবং মৌলভীবাজারের মৌলভীবাজার সদর, বড়লেখা, জুড়ী, কুলাউড়া, রাজনগর, কমলগঞ্জ ও শ্রীমঙ্গল উপজেলা। সিলেট জেলার ১২ উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ৫৯ জন, ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) পদে ৭৬ জন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৪১ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। মৌলভীবাজারের ৭ উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ১৮ জন, ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) পদে ৩৩ জন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে লড়ছেন ২৮ প্রার্থী। সিলেট জেলার মোট ভোটার ১৭ লাখ ৯৩ হাজার ৭১০ জন এবং মৌলভীবাজার জেলায় ভোটার সংখ্যা ১২ লাখ ৯৭ হাজার ৫১৯ জন।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Close