সমগ্র বিশ্ব

স্ত্রীর জিহ্বা কেটে দিলেন স্বামী

পাকিস্তানের লাহোর থেকে ১১০ কিলোমিটার দূরের একটি শহরে রোমহর্ষক এক ঘটনা ঘটেছে। দেশটির গণমাধ্যম বলছে, তালাক দেয়ায় স্ত্রীর জিহ্বা কেটে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে এক স্বামীর বিরুদ্ধে। তালাকের কয়েকদিন পর তিনি এই ঘটনা ঘটিয়েছেন।

পলাতক ওই স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে পুলিশ। তার বিরুদ্ধে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ আনা হয়েছে। দেশটির লাহোর থেকে ১১০ কিলোমিটার দূরের ছোট শহর ডিন্ডি ভাট্টিয়ানে এ ঘটনা ঘটেছে।

পুলিশ বলছে, অভিযুক্ত ওই ব্যক্তির নাম জাহাঙ্গীর। কয়েকদিন আগে স্ত্রী নাসরিনের সঙ্গে বিচ্ছেদ ঘটে তার। পাকিস্তানি টেলিভিশন চ্যানেল জিও টিভির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, অভিযুক্ত ব্যক্তি তার শ্বশুড় বাড়িতে গিয়েছিলেন। সেখানে যাওয়ার পর এক জোড়া কাঁচি দিয়ে সাবেক স্ত্রী নাসরিনের জিহ্বা কেটে দেন তিনি।

এ ঘটনার পর ওই ব্যক্তি দ্রুত ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। পরে পরিবারের সদস্যরা নাসরিনকে উদ্ধার করে স্থানীয় একটি হাসপাতালে নিয়ে যায়।

গত সপ্তাহে লাহোরে বন্ধুদের সঙ্গে নাচতে রাজি না হওয়ায় এক ব্যক্তি তার স্ত্রীর মাথা ন্যাড়া করে দেন এবং মারপিট করেন। সেই ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই একই শহরে আবারো সহিংসতার ঘটনা ঘটলো।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Close