সমগ্র বিশ্ব

সামাজিক মাধ্যম আসক্তিতে ভুগতেন বেঁচে থাকলে হিটলার!

নাৎসী একনায়ক হিটলার বেঁচে থাকলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমকে ভালবেসে ফেলতেন বলে মন্তব্য করেছেন ডিজনীর সিইও বব ইগার। বৃহস্পতিবার ইউটিউব, ফেসবুক, টুইটার ও ইনস্ট্রাগ্রামের মতো সামাজিক মাধ্যমগুলোর কঠোর সমালোচনা করে তিনি এই মন্তব্য করেন।

বব ইগার বলেন, ‘সামাজিক মাধ্যমগুলো চরমপন্থা বিস্তারের সেরা মার্কেটিং টুল। হিটলার তার বর্ণবাদী ও চরমপন্থী প্রপাগা-া ছড়িয়ে দিতে এই মাধ্যমটির ভক্ত হয়ে যেতেন।’ তিনি আরো বলেন, ‘আমরা সবাই জানি সোশ্যাল মিডিয়ার নিউজ ফিডে ঘটনার চেয়ে গল্প বেশি থাকে। এটি এমন সব মতার্দশ ছড়ায় যে, মানবিক জীবনে ও সত্যিকারের সমাজে যার কোন স্থান নেই। এগুলো মনকে বিপর্যস্ত করে ও আত্মার শুদ্ধতা নষ্ট করে।’

প্রসঙ্গত, গত মাসে নিউজিল্যান্ডের মসজিদে হামলায় ৫০জনকে হত্যার আগে সামাজিক মাধ্যমে ইশতেহার ছাড়ে শ্বেতাঙ্গ শ্রেষ্ঠত্ববাদী হামলাকারী। হামলার ভিডিও ইউটিউব ও ফেসবুকে লাইভ করা হয়। এরপরই বিশ্বব্যাপী সমালোচক ও আইনপ্রণেতাদের খড়গের মুখে পড়ে সামাজিক মাধ্যমগুলো।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Close