সমগ্র বিশ্ব

৪৯ সন্তানের পিতা প্রতারণা করে

তার ক্লিনিকে সন্তান হয় না- এমন মহিলাদের লাইন লেগে থাকত আইভিএফ পদ্ধতিতে মা হওয়ার জন্য। অথচ ডোনারের শুক্রানুর বদলে একের পর এক মহিলাদের শরীরে নিজের শুক্রাণু ঢুকিয়ে দিতেন নেদারল্যান্ডের এক ডাক্তার। এইভাবে ৪৯ জন সন্তানের পিতা হয়েছেন তিনি। বিবিসি।

২০১৭ সালে ৮৯ বছর বয়সেই মৃত্যু হয় জান কারবাট নামের ওই ডাচ চিকিৎসকের৷ এর আগে ২০০৯ সালে বন্ধ হয়ে গিয়েছিল তার ওই আইভিএফ ক্লিনিক। সম্প্রতি ক্লিনিকের মাধ্যমে জন্ম নেয়া ব্যক্তিদের ডিএনএ পরীক্ষার মাধ্যমে কারবাটের প্রতারণা ধরা পড়ে।

শুক্রবার তার ক্লিনিক থেকে আইভিএফ করিয়ে মা হওয়া ৪৯ জন মহিলার সন্তানের ডিএনএ পরীক্ষা করানো হয়। পরীক্ষায় প্রমাণিত হয়েছে, ওই ৪৯ সন্তানই ওই চিকিৎসকের শুক্রাণুতেই জন্ম নিয়েছেন।

৪৯ জনের আইনজীবী বোয়েটার্স বলেন, ‘আমরা খুশী অবশেষে স্পষ্টভাবে বিষয়টি জানা গেছে। এই ৪৯ জন জানতে পারলো তাদের বাবা কে।’

এক সন্তান বলেন, ‘১১ বছর ধরে আমি বাবাকে খুজছি। দীর্ঘ সময় ধরে মামলাটি চলছে। এখন আমি আমার স্বাভাবিক জীবন চালিয়ে যেতে পারবো।’

জানা গেছে, নিজের জীবদ্দশায় ৬০ সন্তানের বাবা হয়েছেন বলে নিজেই ডিএনএ পরীক্ষা করিয়েছিলেন জান কারবেট। সেই রিপোর্ট এতদিন আদালতের কাছে সুরক্ষিত ছিল৷ এমনকী মৃত্যুর আগে ওই চিকিৎসক তার বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ স্বীকার করে গিয়েছিলেন বলেও জানানো হয়েছে। তবে কোন শাস্তির মুখোমুখি হতে হয়নি তাকে।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Close