বিনোদন

ভারতে ভোটের প্রচারে অভিনেতা ফেরদৌস

টালিউড থেকে বলিউড, উড়ে আসছেন রায়গঞ্জের তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী কানাইয়ালাল আগরওয়ালের পালে হাওয়া তুলতে। ইতিমধ্যে বলিউড তারকা আফতাব শিবদাসানি দর্শন দিয়ে গিয়েছেন। প্রচার পর্বের শেষ রোববারে ফেরদৌসের সঙ্গে থাকবেন টালিউডি তারকা অঙ্কুশ ও পায়েল। সোমবার করণদিঘী থেকে বেঙ্গল টু বেঙ্গল রোড ধরে ইসলামপুর পর্যন্ত রোড শো করবেন ওই তিন তারকা। ১৬ এপ্রিল আসছেন তৃণমূল সাংসদ দেব। ভোটারদের কাছে ভোটের প্রচারে ভিনদেশী নাগরিকের অংশগ্রহণ অভূতপূর্ব। টাইমস অব ইন্ডিয়া

রায়গঞ্জের প্রার্থী কানাইয়ালালের হয়ে জোড়াফুলে ভোট চাইবেন বাংলাদেশি নায়ক ফেরদৌস। বাংলায় ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত, রচনা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে জুটি বেঁধে একাধিক ছবি করেছেন ফেরদৌস। সে খাতিরে ফেরদৌস অনেক ভোটারের কাছেই সিনেমার সুবাদে সুপরিচিত। প্রার্থীর পক্ষে তার ভোট চাওয়ার আবেদনের একটা যথেষ্ট মূল্যই আছে।

তবে তৃণমূলের এমন প্রচার কৌশলের কথা শুনে কেউ কটাক্ষ করছেন, তো কেউ খুশিই হচ্ছেন। কেউ বলছেন, বিশ্বের বৃহত্তম গণতান্ত্রিক উৎসবে এমন ঘটনা নজিরবিহীন। তাই কেউ প্রশ্ন তুলছেন, নিজেদের সরকার গড়ার নির্বাচনে ভিন দেশের নাগরিক কেন প্রচার করতে আসবেন? স্বদেশের নেতা কি কম পড়েছে ? আবার অনেকে ভাবছেন, মাঝে কাঁটাতার বিভাজন সৃষ্টি করলেও হৃদয়ে তো একটাই বাংলাদেশ। ভাষা ও সংস্কৃতির মেলবন্ধনের পাশাপাশি রাজনৈতিক কর্মকা-েও যদি এমন মিলন ঘটে তো ক্ষতি কী ?

দলীয় প্রার্থীর প্রচারে এভাবে ভিনদেশ থেকে তারকা আনার পেছনে তৃণমূলের তরফে অবশ্য কোনও ব্যাখ্যা পাওয়া যায়নি। কানাইয়ালাল আগরওয়ালের নির্বাচনী এজেন্ট তথা উত্তর দিনাজপুর জেলা পরিষদের কর্মাধ্যক্ষ মোশারফ হোসেন বলেন, কোন তারকা প্রচারে আসবেন বা আসবেন না সেটা ঠিক হয় রাজ্য থেকেই। তবে ফেরদৌস মূলত বাংলাদেশের নায়ক হলেও দুই বাংলার যৌথ উদ্যোগে নির্মিত একাধিক সিনেমা করায় এ পার বাংলার মানুষের কাছেও ভীষণ জনপ্রিয়। এই জেলার চলচ্চিত্রপ্রিয় মানুষের কাছেও তার ক্রেজ রয়েছে। ফলে প্রতিদিনের রাজনৈতিক কচকচানি দূরে সরিয়ে ফেরদৌসের রোড শো ‘বসন্তের ওই বাতাসটুকুর মতো’ই ভোট প্রচারে একটা ভিন্ন স্বাদ এনে দেবে বলেই অনেকের আশা।’

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Close