ফিচার

সম্পর্কের সম্পাদ্য

খান জাহাঙ্গীর:

পরিচিত লোকের সাথে চায়ে চুমুক দিতে দিতে গরম করে তুলি ফুটপাত,

তিনি আমার কাছে টাকা ধার চান এবং আমি দিয়ে দেই অবলীলায়

যেন আমরা একে অন্যের পরিপূরক।

সপ্তাহ গড়িয়ে মাস আসলেই বেঁধে যায় সম্পর্কে টানাপোড়ন,

কারণ বেলা হয়েছে ধার দেওয়া টাকা ফিরিয়ে নেওয়ার।

প্রেমিকার সাথে কথা বলতে বলতে জয় করে ফেলি সাত আসমান,

চুমুতে তে ভাসিয়ে দেই চ্যাট বক্স,ফোনের এপাশ-ওপাশ এবং কলা ভবনের চিপা।

যেন আমরা দুই মেরুর সৃষ্ট এক মানব,

সম্পর্কের সম্পাদ্য তখনই ঘটে,যখন জানতে চাওয়া হয়,

তার ইমেল পাসওয়ার্ড এবং বেষ্ট ফ্রেন্ডের সাথে এতো সখ্যতার কারণ।

জুম্মার নামাজ শেষে পিতা পুত্র খেতে বসে গোল টেবিলে,

মুখে লবণ দিতে দিতে বাবা বলেন বিসমিল্লাহ বলে খাওয়া শুরু করা সুন্নত,

মন মালিন্য তখনই ঘটে যখন ছেলে বলে উঠে,

বাবা আজকে ইমাম সাহেব বলেছেন সুদ খাওয়া আর আপন মাকে বিয়ে করা সমান অপরাধ,
আর ঘুষ সে-তো পাপেরও বাপ।

খামুশ!হাদিসের বাণী আমাকে শিখাতে হবেনা বলে বাবার হুংকার।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Close