ইংল্যান্ডএডিটর্স পিকসখবরটপ স্টোরিজ

ইংল্যান্ডের চার্লটি ক্যারিন বাংলাদেশের পতাকা বিক্রি করতে পেরে খুশি

গত বুধবার ইংল্যান্ডের কেনিংটন ওভালের মত কার্ডিফের স্টেডিয়ামের পাশেও দেখা গেলো অস্থায়ী বিক্রেতাদের। বাংলাদেশ-ইংল্যান্ডের জার্সি, ক্যাপ এবং পতাকা বিক্রি করছেন তারা। বাংলাদেশের সাথে ইংল্যান্ডের সমর্থকরাও পতাকা, জার্সি, ব্যানার, ক্যাপ ক্রয় করছেন। তবে এই কার্ডিফেও ব্যতিক্রম হলো না বাংলাদেশের পতাকা, জার্সি বিক্রিতে। তেমনই একজন চার্লটি ক্যারিন। তিনি ভ্যান ভর্তি করে এনেছেন বাংলাদেশ-ইংল্যাান্ডের জার্সি, ক্যাপ এবং পতাকা। কিন্তু তার কাছে সবচেয়ে বেশি বিক্রি হচ্ছে বাংলাদেশের জার্সি ও পতাকা। এমনকি যারা কিনছেন, প্যাকেট থেকে পতাকা-জার্সি বের করে সমর্থকদের পরিয়ে দিচ্ছেন চার্লট।

তিনি বলেন, ‘কার্ডিফে আমার নিজের ক্রীড়া সামগ্রীর দোকান রয়েছে। এখানে খেলা হলেই আমি জার্সি, ক্যাপ এবং পতাকা বিক্রি করে থাকি। এবার বাংলাদেশের জার্সি, ক্যাপ এবং পতাকা বেশি বিক্রি হচ্ছে। আমার খুবই ভালো লাগছে। বাংলাদেশ এখন শক্তিশালী দল। তারা তো বিশ্বের সব দলকে হারিয়ে দেয়। আজও ভালো কিছু করতে পারে। সবাই আমার কাছ থেকে জার্সি, ক্যাপ এবং পতাকা নিয়ে গ্যালারিতে উড়াবে। অবশ্য আমি তা দেখতে পারবো না। তবে ভেবেই ভালো লাগছে।’

এদিন কার্ডিফের সোফিয়া গার্ডেন্সেও ম্যাচ শুরুর দু’ঘন্টা আগ থেকেই স্টেডিয়ামের আশে পাশে জড়ো হয়েছে ওয়েলসে বসবসারত বাংলাদেশের ক্রিকেট প্রেমিরা। মাশরাফি-সাকিব-মুশফিকদের জার্সি পরে, বাংলাদেশের পতাকা মাথায় বেঁধে, গালে বাংলাদেশের পতাকা এঁকে, ব্যানার-ফেস্টুন নিয়ে সোফিয়া গার্ডেন্সের আশপাশ উৎসবমুখর করে তুলেন তারা। দেখে মনে হচ্ছিলো এ যেন এক মিরপুর স্টেডিয়াম।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ এই ম্যাচে ১০৬ রানের বিশাল ব্যবধানে হেরেছে।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Close