খবরটপ স্টোরিজ

ব্রিটেনে ঘন্টা প্রতি সবচেয়ে কম আয় করেন ব্রিটিশ বাংলাদেশীরা

ব্রিটেনে গত বছর চাকুরী ক্ষেত্রে ব্রিটিশ শেতাঙ্গদের চেয়ে ৪ শতাংশ কম আয় করেছেন এথনিক মাইনোরিটির মানুষ। এ নিয়ে প্রথমবারের মতো পূর্নাঙ্গ রিপোর্ট প্রকাশ করেছে অফিস ফর ন্যাশনাল স্ট্যাটিসটিক্স (ওএনএস)। এতে বলা হয়েছে ঘন্টা প্রতি ইনকামে অনেক বেশী পিছিয়ে বাংলাদেশী ও পাকিস্তানী অরিজিনরা। তবে চাইনিজ এবং ইন্ডিয়ানরা অন্যান্য এথনিকদের চেয়ে বেশী বেতনে চাকুরী করে থাকেন। এই বৈষম্যকে বলা হচ্ছে এথনিসিটি পে গ্যাপ।
ওএনএস‘র নতুন রিপোর্টে উঠে এসেছে, ব্রিটেনে এথনিক অরিজিনরা ব্রিটিশ শেতাঙ্গদের চেয়ে প্রায় ৪ শতাংশ কম আয় করে থাকেন। কিন্তুু লন্ডনে এই ব্যবধান অনেক বেশী। প্রায় ২১ শতাংশ। রাজধানী লন্ডনে ঘন্টা প্রতি যেখানে একজন হোয়াইট মানুষ আয় করে থাকেন ১২ পাউন্ড। সেখানে বাংলাদেশী কমিউনিটির একজন ওয়ার্কারের বেতন মাত্র ৯ পাউন্ড ৬০ পেন্স। তবে চাইনিজরা আয় করেন অনেক বেশী। তাদের পাউন্ড ঘন্টা প্রতি আয় প্রায় ১৫ পাউন্ড। আর্ন্তজাতিক একাউন্টেন্সি ও অডিট ফার্ম পিডব্লিউসি ইতমধ্যে ভলান্টারি ভিত্তিতে তাদের এথনিসিটি পে গ্যাপ ডাটা প্রকাশ করেছে। তাতেও দেখা গেছে বেতন পাওয়ার ক্ষেত্রে এই ব্যবধান।
বহুজাতি এবং বহু সাংস্কৃতির দেশ ব্রিটেন দিন দিন নানা ক্ষেত্রে এগিয়ে গেলেও অভিবাসী কমিউনিটির চাকুরী ক্ষেত্রে সমতা সৃষ্টিতে অনেক পিছিয়ে আছে।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Close