আমাদের কমিউনিটি

লন্ডনে কাঁঠাল বিরিয়ানির লাইভ কুকিং সেমিনার

শুধু সেবা আর সুন্দরভাবে খাবার উপস্থাপনাই নয় ব্যবসার প্রতিযোগিতায় রেষ্টুরেন্ট অথবা টেকওয়েকে টিকিয়ে রাখতে হলে খাবারের মেন্যুতে বৈচিত্র নিয়ে আসা এবং ফুড হাইজিন স্ট্যান্ডার্ড অর্থ্ া স্কোর অন দ্যা ডোর উচ্চচমানের রাখা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এমন অভিমত ব্যক্ত করেছেন কারি লাইফ আয়োজিত কালিনারি ওয়ার্কশপে ইন্ডাষ্ট্রি বিশেষজ্ঞরা। সোমবার ডকল্যান্ডে র‌্যাডিসন হোটেলে রেষ্টুরেন্ট ম্যাগাজিন কারি লাইফ আয়োজিত অষ্টম কালিনারি ওয়ার্কশপ ও নেটওয়ার্কিং ডিনারে উপস্থিত ছিলেন হসপিটালিটি ইন্ডাষ্ট্রির নামি দামী মিশেলিন’ স্টার শেফ ও ম্যানেজার, রেষ্টুরেটার্স, ফুড হাইজিন বিশেষজ্ঞ ও বিভিন্ন সাপ্লায়ার্সরা।
কারি লাইফ এর সম্পাদক সৈয়দ বেলাল আহমদ স্বাগত বক্তব্যের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সুচনা হয়। সৈয়দ বেলাল আহমদ বলেন, আমরা গত আট বছর যাবত কারি ইন্ডাষ্ট্রিতে নতুন টেকনিক শেখা থেকে নিয়ে স্টান্ডার্ড বাড়ানো, এলার্জি সচেতনতা ইত্যাদি নিয়ে অনুষ্ঠান করে আসছি। কিন্তু বাস্তবতা হচ্চেছ আমাদের ইন্ডাষ্ট্রিতে ট্রেনিং বুঝানো অনেক কঠিন। অধিকাংশ মানুষ কুইক ফিক্স^ ও শর্টকাট সমাধান খুজেন। কিন্তু সেদিন এখন চলে গেছে। আমাদের যার যা কিছু তা নিয়েই সমাধান খুঁজতে হবে। তিনি বলেন, বরিস জনসন অবৈধদের বৈধতা দিয়ে দিবেন এদিকে না চেয়ে যা আছে তা নিয়েই আমাদের এগোতে হবে। ইন্ডাষ্ট্রির নতুন ট্রেন্ডের সাথে খাপ খাইয়ে নিতে হবে।
কারি লাইফ আয়োজিত বৈচিত্রময় অনুষ্ঠানটিতে কিভাবে ব্যবসার বিভিন্ন ক্ষেত্রে সফলতা আনা যায় এ নিয়ে বক্তব্য রাখেন সিলেব্রিটি মিশেলিন স্টার শেফ মার্ক পয়েন্টন। মার্ক পয়েন্টন বলেন, রান্নায় কি কি উপাদান ব্যবহার করলে খাবার শুধু সুস্বাদু হবে তা নয় স্বাস্থ্যকর হবে সে দিকে আলোকপাত করেন। আগাম বুক করে আসা কাস্টমারদের কিভাবে রেষ্টুরেন্টে স্বাগত জানাবেন সে বিষয়েও কিছু উপদেশ দেন মার্ক।
আরেক মিশেলিন স্টার শেফ রুপার্ট রাউলি বলেন, খাবারের গুনগত মানের দিকে লক্ষ্য রাখার জন্যে রেষ্টুরেন্ট ও টেকওয়ে মালিকদের আহবান জানান। এক কালে গর্ডন রামসির রেষ্টুরেন্ট পরিচালনাকারী ম্যানেজার মো ঘেরাস রেষ্টুরেন্টে কিভাবে ভাল সার্ভিস দেয়া যায় সে বিষয়ে বক্তব্য রাখেন।
অনুষ্ঠানে কারি লাইফ এর ফুড এ্যান্ড হাইজিন বিশেষজ্ঞ শামসুল ইসলাম কিভাবে রেষ্টুরেন্ট হাইজিন মেন্টেইন করবেন সে বিষয়ে একটি প্রেজেন্টেশন তুলে ধরেন। বাংলা ভাষায় দেয়া এই প্রেজেন্টেশনে তিনি সবাইকে ব্যবসায় টিকে থাকতে হলে যথাযথ ট্রেনিং নেয়ার আহবান জানান। জাষ্টা ইট এর পক্ষে হাইজিন নিয়ে কথা বলেন তাদের টেনিং পার্টনার এনএস’এফ এর প্রতিনিধি আশ্বিনি পান’ছল ডিলন।
এবারের কালিনারি ওয়ার্কশপে সবচেয়ে আকর্ষণীয় দুটি উপস্থাপন ছিলো বাংলাদেশের জাতীয় ফল কাঠাল নিয়ে এবং কিভাবে তৈলবিহীন ইন্ডিয়ান খাবার তৈরি করা যায়। ইন্ডিয়ান সিলেব্রিটি টিভি শেফ ও ২৭টি রেসিপি বইয়ের লেখক মৃদুলা বালজেকার প্রথমবারের মতো কারি লাইফ আয়োজিত অনুষ্ঠানে লাইফ কুকিং করে দেখান। কিভাবে তেল অথবা ঘি ছাড়া চিকেন কোরমা বা অন্যান্য কারি রান্না করা যায় এ বিষয়ে কথা বলেন। তিনি অনুষ্ঠানে তৈলবিহিন চিকেন কোরমা রানা করে দেখান।
অনুষ্ঠানে সবচেয়ে আকর্ষণীয় খাবার এবং প্রদর্শনী ছিল কাঠালের বিরিয়ানি। পশ্চিমের দেশগুলোতে বাংলাদেশ ও ভারতীয় ফল কাঠাল খুবই জনপ্রিয়তা পাচ্চেছ। বিশেষ করে ভিগান ও ভেজেটিরায়নদের জন্যে কাঠালের বার্র্গার থেকে নিয়ে নানা উপাদেয় খাবার তৈরি করা হচ্চেছ। কাঠাল আমদানীকারক একটি প্রতিষ্ঠান বাকলি এ্যান্ড বিল এর প্রতিনিধি নরিন ফিনামোর কাঠালের উপকারিতা নিয়ে বক্ত্য রাখেন অনুষ্ঠানে। অনুষ্ঠানে কাঠালের বিরিয়ানির লাইভ কুকিং দেখানো হয়। শেফ আবুল মনসুরের তৈরী কাঠাল বিরিয়ানি ও মিন্ট ক্যাটারার্সের কাঠাল বিচি দিয়ে তৈরি কারি অনুষ্ঠানে আসা অতিথিদের মধ্যে ব্যাপক প্রশংসা পায়।
জান্নাত সৈয়দের উপস্থাপনায় প্রাণবন্ত অনুষ্ঠানের শেষে প্রশ্নোত্তর পর্ব পরিচালনা করেন কারি লাইফ ম্যাগাজিনের প্রধান সম্পাদক সৈয়দ নাহাস পাশা। সবশেষে ওয়ার্কশপে যোগদানকারী বারটি রেষ্টুরেন্টের ম্যানেজার ও শেফদের সার্টিফিকেট প্রধান করা হয়। এগুলো হচ্চেছ টেইষ্ট অব নাবাব, দ্যা লেইন, ইন্ডিয়ান ওশেন, স্পাইস লাঞ্জ, মাহিস ইন্ডিয়ান, রশনি রেষ্টুরেন্ট, মুমতাজ লাঞ্জ, থ্রি স্পাইসেস, দ্যা ক্যাপিটাল, ফরেষ্ট তান্দুরি, রুপালি রেষ্টুরেন্ট ও বো“ে স্পাইস। কালিনারি ওয়ার্কশপটি স্পন্সর করে জাষ্ট ইট, কিংফিশার, মিন্ট ক্যাটারার্স, ইউনিসফট ও ট্রেভেল লিংক।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Close