প্রবাসে সফল বাঙালী

সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রধানমন্ত্রীকে নৌকা ভ্রমণ করিয়ে প্রশংসায় ভাসছেন বাংলাদেশি নৌকাচালক

সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রধানমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ বিন রাশেদ আল মাকতুমকে নৌকা ভ্রমণ করিয়ে প্রশংসায় ভাসছেন বাংলাদেশি নৌকাচালক মোহাম্মদ আলম। সম্প্রতি দুবাই শাসক পায়ে হেটে দুবাই গোল্ড সুকে যান, সেখান থেকে নৌকায় করে আবরা লেক পরিদর্শনে যান। আবরা লেক পারাপারের জন্য প্রধানমন্ত্রীর জন্য অনেক নৌকা প্রস্তুত রাখা হয়েছিল। কিন্তু এসব নৌকার মধ্য থেকে দুবাই শাসক বাংলাদেশির নৌকায় চড়ে বসেন। নৌকায় দুবাইয়ের শাসককে পেয়ে নিজেকে সৌভাগ্যবান ব্যক্তি মনে করেন আলম।

প্রধানমন্ত্রীর নৌকায় পারাপারের এই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড হওয়ার পর তা রীতিমত ভাইরাল হয়ে যায়। যে ভিডিওতে দুবাইয়ের ঐতিহ্যবাহী এক দিরহামে নৌকা পারাপারের দৃশ্য দেখা যায়। তবে এই ভিডিওতে সর্বাধিক আলোচিত নৌকাচালক বাংলাদেশি আলম।

গত মঙ্গলবার সকালে সেখানে রাখা নৌকা চালকদের মধ্য থেকে কোন নৌকায় চড়ে প্রধানমন্ত্রী লেক পার হবেন তা ছিল জনমনে। কে হবেন সেই সৌভাগ্যবান চালক? এমন গুঞ্জনও বেশ জোরেশোরে শোনা যাচ্ছিল।

উৎফু্ল্ল আলম আমিরাতের প্রভাবশালী গালফ নিউজকে বলেন, ‌গত সোমবার কোনো সাধারণ দিন ছিল না তার কাছে। নিজেকে অনেক ভাগ্যবান মনে করেছি, আমাদের মধ্যে অনেক চালক ছিলেন, আমার বস আমাকে জানিয়েছিলেন যে সড়ক ও পরিবহন কর্তৃপক্ষের (আরটিএ) কিছু অফিসারের জন্য আবরাকে আলাদাভাবে প্রস্তুত রাখতে হবে। জানতাম না শেখ মোহাম্মদও আসছেন, তাই আমি এগিয়ে গেলাম এবং এর চেয়ে বেশি কিছুই ভেবে দেখিনি।’

তিনি আরও বলেন, ‌শেখ মোহাম্মদ যখন নৌকাতে পা রেখেছিলেন, আমি তাকে প্রথমবারের মতো দেখে অবাক হয়েছি এবং খুব খুশি হয়েছি। তিনি আমার সাথে হ্যান্ডসেক করে জিজ্ঞেস করলেন আমি কেমন আছি এবং উত্তরে ভাল আছি জানিয়ে ধন্যবাদ জানালাম। আমি স্বাভাবিক ছিলাম, কারণ আমি সব সময় এই কাজটি করি, তাকে কেবল নৌকায় করে উঠাতে পেরেই আমি আনন্দিত।

৪০ বছর বয়সী আলম দুবাই ক্রিকের আল রাসে থাকেন এবং আবরা লেকে কমিশনে কাজ করেন। ২০০৬ সালে তিনি দুবাই আসেন। ১৩ বছরে চাকুরী জীবনে এর আগে কখনো কোনো বিখ্যাত ব্যক্তি তার বোটে ভ্রমন করেননি বলে জানান তিনি।

মোহাম্মদ আলমের দেশের বাড়ি কক্সবাজার জেলার উখিয়ায়। দেশে তার স্ত্রী ও দুই সন্তান রয়েছে। আমাদেরসময়

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Close