ফিচার

পিঠে ব্যথার ১৩ কারণ

পিঠ ব্যথা মানেই মারাত্মক কিছু নয়। অর্ধেকেরও বেশি পিঠ ব্যথার ঘটনা দুশ্চিন্তা করার মতো নয়- এসব পিঠ ব্যথা সরল কারণে হয়ে থাকে। তাই পিঠ ব্যথা হলে এটা ভেবে ভেঙ্গে পড়বেন না যে আপনার ক্যানসার হয়েছে অথবা অন্যান্য মারাত্মক স্বাস্থ্য সমস্যা।

কিন্তু পিঠ ব্যথার স্থায়িত্ব, তীব্রতা ও ধরনের ওপর ভিত্তি করে আপনার জরুরি ভিত্তিতে মেডিক্যাল সেবা নেয়ারও প্রয়োজন হতে পারে- একারণে যেকোনো পিঠ ব্যথা সরল কারণে হচ্ছে মনে করে অবহেলা করা ঠিক হবে না। আপনাকে এটা মনে রাখতে হবে যে ক্যানসার বা কিডনি পাথর বা মহাধমনী ছিঁড়ে যাওয়া বা পালমোনারি এম্বলিজম বা মেরুদণ্ডের হাড় ভেঙ্গে যাওয়া বা অন্যান্য মারাত্মক দশার কারণেও পিঠ ব্যথা হতে পারে। উপরের পিঠে ব্যথার ১৩ কারণ নিয়ে দুই পর্বের প্রতিবেদনের আজ থাকছে প্রথম পর্ব।

* আপনি ডেস্ক জব করেন

আপনি কি ঘাড়কে খুব বেশি বাঁকিয়ে অথবা ঝুঁকে ডেস্ক জব করেন? এমনটা হলে আপনার উপরের পিঠে ব্যথার কারণ এটাই হতে পারে। ম্যাসাচুসেটসের ইমার্জেন্সি মেডিসিন ফিজিশিয়ান বলেন, ‘উপরের পিঠে ব্যথার সবচেয়ে কমন কারণ হলো অস্বাভাবিক ভঙ্গিতে বসে পিঠের মাংসপেশিকে টানের মধ্যে রাখা। চেয়ারে বসে পিঠকে বাঁকিয়ে কম্পিউটার নিয়ে কাজ করলে বুকের মাংসপেশি খাটো হয়ে যায় এবং উপরিস্থ পিঠের মাংসপেশিতে টান পড়ে। এর ফলে অনেক লোকের দুই শোল্ডার ব্লেডের (স্ক্যাপুলা) মাঝে মাসল স্পাজম বা মাংসপেশির হঠাৎ অনৈচ্ছিক সংকোচন হয়।’ মাংসপেশি টাইট হয়ে যায় বলে ঘাড় নাড়ানো কঠিন হয়ে পড়ে। এছাড়া প্রতিদিনকার অন্যান্য অভ্যাস (যেখানে অস্বাভাবিক ভঙ্গিতে বসা হয়) দ্বারাও পিঠ ব্যথা হতে পারে।

* আপনি স্ট্রেসে আছেন

কেবলমাত্র অস্বাভাবিক ভঙ্গিতে বসলেই যে ঘাড় ও কাঁধ অথবা শোল্ডার ব্লেডের পার্শ্ববর্তী মাংসপেশিতে টান পড়ে তা নয়, প্রকৃতপক্ষে অনেকগুলো ফ্যাক্টরের কারণে মাংসপেশিতে টান পড়তে পারে অথবা মাংসপেশি শক্ত হয়ে যেতে পারে, বলেন নিউ জার্সিতে অবস্থিত আটলান্টিক স্পাইন সেন্টারের ইন্টারভেনশনাল পেইন ম্যানেজমেন্ট স্পেশালিস্ট কালিক চ্যাং। উপরের পিঠে ব্যথা বা অনমনীয়তা অনুভবের কিছু উল্লেখযোগ্য কারণ হলো: পিঠ বাঁকিয়ে দীর্ঘক্ষণ বসা, অতিরিক্ত স্ট্রেস বা মানসিক চাপে থাকা, অত্যধিক শ্রমসাধ্য কাজ বা ব্যায়াম করা ও অস্বাভাবিক ভঙ্গিতে ঘুমানো।

সাধারণত মাংসপেশিতে টান পড়ার ক্ষেত্রে আপনার ঘরে বিশ্রাম নেয়ার প্রয়োজন হবে। ডা. চ্যাং বলেন, ‘সরল কারণে (যা দুশ্চিন্তা করার মতো নয়, যেমন- পিঠ বাঁকিয়ে বসা, অসংগত ভঙ্গিতে ঘুমানো ও স্ট্রেস) মাসল স্ট্রেইন হলে অথবা মাংসপেশিতে টান পড়লে তা কিছুদিন থাকে। এসময় আপনাকে আরামদায়ক অবস্থানে থাকতে হবে। আপনি বিশ্রাম নিয়ে, বরফের সেঁক দিয়ে, ইবুপ্রোফেন বা ন্যাপ্রোক্সেনের মতো প্রদাহনাশক ওষুধ সেবন করে অথবা উপরের পিঠে ব্যথার অন্যান্য কার্যকর ঘরোয়া চিকিৎসার মাধ্যমে এ সমস্যা দূর করতে পারেন।’

আপনি সবসময় এটা ভাবতে পারবেন না যে, আপনার এ অস্বস্তি বা ব্যথা বড় কোনো শারীরিক সমস্যার লক্ষণ নয়। আপনার এ ব্যথা কিছুদিনের মধ্যে চলে না গেলে অথবা আপনাকে নিয়মিত ব্যথার ওষুধ খেতে হলে একজন ফিজিশিয়ান দ্বারা এ লক্ষণ মূল্যায়ন করা উচিত, বলেন শিকাগোতে অবস্থিত রুশ ইউনিভার্সিটি মেডিক্যাল সেন্টারের অর্থোপেডিক সার্জারি অ্যান্ড ফিজিক্যাল মেডিসিন অ্যান্ড রিহ্যাবিলিটেশনের সহকারী অধ্যাপক লিডা ঘানাড। এছাড়া এ ব্যথা বা অস্বস্তি আপনার দৈনন্দিন কাজ সীমিত করে ফেললে অথবা আপনাকে কাজ বন্ধ করে বিছানায় পড়ে থাকতে হলেও দেরি না করে চিকিৎসকের কাছে যাওয়া উচিত।

* আপনার টিউমার হয়েছে

উপরের পিঠে ব্যথা অনুভবের কারণে আপনি নিজের মতো করে ঘরোয়া চিকিৎসা নিয়েছেন, ম্যাসাজ করেছেন এবং এমনকি নতুন ম্যাট্রেসও কিনেছেন, কিন্তু তারপরও এ ব্যথা আপনাকে ভোগাচ্ছে। এ অবস্থায় হয়তো আপনি ভাবছেন যে আর কি করা যায়? বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ হলো, আর কালবিলম্ব না করে চিকিৎসকের কাছে ছুটে যান, কারণ প্রতিনিয়ত উপরিস্থ পিঠে ব্যথা লাং টিউমার বা ফুসফুস ক্যানসারের একটি লক্ষণ হতে পারে। দ্য আমেরিকান ক্যানসার সোসাইটির প্রতিবেদনে উল্লেখ আছে, অ্যাডভান্সড লাং ক্যানসার বা ছড়িয়ে পড়া ফুসফুস ক্যানসার হাড় ব্যথার কারণ হতে পারে। ফুসফুস ক্যানসারের অন্যান্য উল্লেখযোগ্য লক্ষণ হলো: ওজন কমে যাওয়া, বুকে ব্যথা ও দুর্বলতা।

* আপনি গাড়ি দুর্ঘটনায় পড়েছেন

দুর্ভাগ্যবশত আপনি গাড়ি দুর্ঘটনায় পড়েছেন এবং এ ঘটনাস্থল থেকে নিজে নিজে ঘরে ফিরতে পেরেছেন- আপনি চিকিৎসকের কাছে যাননি, কারণ আপনি দেখলেন যে আপনার শরীরে বাহ্যিক কোনো ক্ষতি হয়নি। হ্যাঁ ঠিক আছে, আমরা মেনে নিচ্ছি যে আপনার এ ভাবনা যুক্তিসংগত- কিন্তু চিকিৎসকের কাছে না যাওয়ার এ যুক্তিকেই আপনি খন্ডন করতে চাইবেন যদি আপনার হুইপ্লাশ সম্পর্কে ধারণা থাকে। হুইপ্লাশ হলো গাড়ি দুর্ঘটনার সময় সংঘটিত একটি তীব্র ঝাঁকুনি, যেখানে একজন লোকের মাথা সামনে-পেছনে মুভ করে এবং এ ঝাঁকুনিতে ঘাড় ও উপরের পিঠের মাংসপেশি ও লিগামেন্ট ছিঁড়ে যেতে পারে ও প্রদাহ হতে পারে, বলেন ডা. চ্যাং। যদি আপনি মনে করেন যে আপনার হুইপ্লাশ হয়েছে, তাহলে চিকিৎসকের শরণাপন্ন হতে ভুলবেন না। হুইপ্লাশের উল্লেখযোগ্য উপসর্গ হলো: ক্লান্তি, মাথাঘোরা ও ঘাড় ব্যথা।

* আপনার কিডনিতে পাথর হয়েছে

যার কিডনিতে পাথর হয়েছে তিনি জানেন যে এটি কতটা যন্ত্রণাদায়ক এবং কিডনির পাথর উপরের পিঠে ব্যথা সৃষ্টি করতে পারে, বলেন ডা. ঘানাড। উপরিস্থ পিঠে ব্যথাই কিডনিতে পাথরের একমাত্র উপসর্গ নয়, আপনার শরীরের পাশ ও বুকের পাঁজরের নিচেও তীব্র ব্যথা অনুভব হতে পারে, মায়ো ক্লিনিকের প্রতিবেদন অনুযায়ী। কিডনিতে পাথরের অন্যান্য উল্লেখযোগ্য উপসর্গ হলো: মূত্রত্যাগের সময় ব্যথা বা অস্বস্তি অথবা লাল বা বাদামী রঙের মূত্র। আপনার উপরের পিঠে প্রতিনিয়ত তীব্র ব্যথা অনুভূত হলে একজন চিকিৎসক দ্বারা মূল্যায়ন করুন, বলেন ডা. ঘানাড।

* আপনার স্পাইনাল ইনফেকশন হয়েছে

স্পাইনাল ইনফেকশনের কারণে আপনার উপরিস্থ পিঠে তীব্র ব্যথা হতে পারে এবং সেইসঙ্গে জ্বর আসতে পারে অথবা আপনার বাহু অসাড়/দুর্বল হতে পারে, বলেন ডা. টিয়েন। স্পাইনাল ইনফেকশনের অন্যান্য উল্লেখযোগ্য উপসর্গ হলো: ঠান্ডা শরীর, মাথাব্যথা, ঘাড় শক্ত হয়ে যাওয়া বা ঘাড় নাড়াতে কাঠিন্যতা ও পায়ে দুর্বলতা। এ ইনফেকশনের কিছু রিস্ক ফ্যাক্টর হলো: দুর্বল ইমিউন সিস্টেম, পুষ্টিহীনতা, হিউম্যান ইমিউনোডেফিশিয়েন্সি ভাইরাস (এইচআইভি) ইনফেকশন, ক্যানসার, ডায়াবেটিস ও স্থূলতা। এছাড়া সার্জিক্যাল রিস্ক ফ্যাক্টরও রয়েছে। আপনার চিকিৎসক স্পাইনাল ইনফেকশন সাসপেক্ট করলে নিশ্চিত হতে এক্স-রে, সিটি স্ক্যান অথবা এমআরআই স্ক্যান অর্ডার করতে পারেন। অ্যান্টিবায়োটিক অথবা অ্যান্টিফাঙ্গাল ওষুধ দিয়ে এ ইনফেকশনের চিকিৎসা করা যায়।

তথ্যসূত্র : দ্য হেলদি

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

আরও দেখুন...

Close
Close