সমগ্র বিশ্ব

যেই গ্রামে মানুষ এবং পশু সবাই অন্ধ

মেক্সিকোর ঘন অরণ্যের মধ্যে ছোট্ট গ্রাম টিলটেপেক। ওই গ্রামে থাকেন তিন শতাধিক জাপোটেক গোষ্ঠীর মানুষ। তবে আশ্চর্যের বিষয় ওই গ্রামের প্রতিটি মানুষ দৃষ্টিহীন। এমনকি ওই গ্রামের সকল পশুও দৃষ্টিহীন। অর্থসূচক

লাবজুয়েলা নামে একটি গাছ রয়েছে ওই গ্রামে। এটাকে অভিশপ্ত বলে মনে করেন গ্রামবাসী। তাদের বিশ্বাস, সবার দৃষ্টিশক্তি চলে যাওয়ার পেছনে ওই লাবজুয়েলা গাছ দায়ী!

ওই গ্রামে যেসব বাচ্চা জন্ম নেয়, শুরুতে অন্য নবজাতকের মতো সুস্থ-সবল হয়। কিন্তু এক সপ্তাহ যেতে না যেতেই দৃষ্টিশক্তি হারিয়ে ফেলে তারা। কেন ওই গ্রামের মানুষ দৃষ্টিশক্তি হারিয়ে ফেলছেন, তা নিয়ে স্থানীয় প্রশাসন ও বিজ্ঞানীরা গবেষণা শুরু করেন। লাবজুয়েলা গাছের যে গল্প গ্রামজুড়ে ছড়িয়ে আছে, সেটা নিয়েও গবেষণা করে দেখা হয়। কিন্তু সবশেষে দেখা যায়, ওই গাছের সঙ্গে সবার দৃষ্টিহীনতার কোনো সম্পর্ক নেই।
বিজ্ঞানীরা গবেষণা চালিয়ে জানতে পারেন, ওই ঘন অরণ্যে ‘ব্ল্যাক ফ্লাই’ নামে বিষাক্ত মাছি রয়েছে। যা টিলটেপেক গ্রামেও প্রচুর সংখ্যায় দেখা যায়।

ওই বিষাক্ত মাছির কামড়ে জীবাণু সারা শরীরে ছড়িয়ে পড়ে। যার ফলে শিশু থেকে বুড়ো এবং পশুরাও ধীরে ধীরে দৃষ্টিশক্তি হারিয়ে ফেলে। মেক্সিকো সরকার যখন ওই গ্রাম সম্পর্কে জানতে পারে, তখন তাদের অন্য স্থানে সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। কিন্তু সেই প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয়।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Close