সোনার বাংলাদেশ

আবরার ফাহাদ হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার ১০ আসামিকে রিমান্ড মঞ্জুর

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার ১০ আসামিকে ৫ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

আজ মঙ্গলবার ঢাকার মহানগর মুখ্য হাকিম সাব্বির ইয়াসির আহসান চৌধুরী তাদেরকে এ রিমান্ডের আদেশ দেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন চকবাজার থানার সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা (জিআরও) এসআই মাজহারুল ইসলাম।

এর আগে মঙ্গলবার দুপুরে আবরার হত্যায় গ্রেপ্তার হওয়া ১০ আসামির প্রত্যেককে ১০ দিন করে রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠায় পুলিশ। আদালতে ১০ আসামির মধ্যে তিনজনের আইনজীবী এ সময় তাদের জামিন চেয়ে যুক্তি উপস্থাপন করলে আদালত তা খারিজ করে দেন।

পরে আদালত পুলিশের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে প্রত্যেক আসামিকে ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

গ্রেপ্তারকৃত ১০ আসামি হলেন- বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান রাসেল (সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং, দ্বিতয়ি বর্ষ), সহ-সভাপতি মুহতাসিম ফুয়াদ (সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং, দ্বিতীয় বর্ষ), সাংগঠনিক সম্পাদক মেহেদী হাসান রবিন (মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং, চতুর্থ বর্ষ), তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক অনিক সরকার (মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং, চতুর্থ বর্ষ), ক্রীড়া সম্পাদক মেফতাহুল ইসলাম জিয়ন (নেভাল আর্কিটেকচার অ্যান্ড মেরিন ইঞ্জিনিয়ারিং, চতুর্থ বর্ষ), উপ-সমাজসেবা সম্পাদক ইফতি মোশাররফ সকাল (বায়ো মেডিকেল ইঞ্জিনিয়ারিং, তৃতীয় বর্ষ), সদস্য মুনতাসির আল জেমি (মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ, দ্বিতীয় বর্ষ), মো. মুজাহিদুর রহমান মুজাহিদ (ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেক্ট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং, তৃতীয় বর্ষ) এবং মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের তৃতীয় বর্ষের খন্দকার তাবাখখারুল ইসলাম তানভির, চতুর্থ বর্ষের ইসতিয়াক আহম্মেদ মুন্না।

প্রসঙ্গত, ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশর হওয়া সমঝোতা স্মারক নিয়ে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেন বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ। এরপর তাকে ডেকে নিয়ে মারধর করে বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের কিছু নেতা। বেধড়ক পিটুনিতে মৃত্যু হয় আবরারের।

গতকাল সোমবার আবরার ফাহাদকে হত্যার ঘটনায় ১৯ জনকে আসামি করে চকবাজার থানায় একটি মামলা দায়ের করেন তার বাবা বরকত উল্লাহ।  আমাদেরসময়

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Close