সোনার বাংলাদেশ

মা’র বিয়ে নিয়ে যা বললেন নুহাশ

নন্দিত কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদের ৭১তম জন্মদিন ছিল গতকাল বুধবার। দেশব্যাপী নানা আয়োজনে দিনটি উদযাপন করা হয়। এদিনই সামজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলোতে এই কথাসাহিত্যিকের সাবেক স্ত্রী গুলতেকিন খানের বিয়ের খবর ভাইরাল হয়।

জানা গেছে, যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব কবি আফতাব আহমদকে বিয়ে করেছেন গুলতেকিন। নতুন জীবন শুরু করায় প্রিয়জন ও শুভাকাঙ্খীদের শুভেচ্ছায় ভাসছেন তারা।

তবে অনেকের মনেই কৌতুহল মায়ের দ্বিতীয় বিয়ে নিয়ে কী ভাবছেন তার ছেলে-মেয়েরা। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বিয়েটা হয়েছে সবার সম্মতিই। গুলতেকিন তার সন্তানদের পূর্ণ সমর্থন নিয়েই নতুন জীবন শুরু করেছেন।

একটি গণমাধ্যমে হুমায়ূন আহমেদ ও গুলতেকিন খানের বড় ছেলে নুহাশ মায়ের বিয়ে নিয়ে নিজের মতামতও দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, ‘মা শক্ত হাতে আমাদের বড় করেছেন। কখনও কোনো অভাব বুঝতে দেননি। মা সব সময়ই আমাদের কাছে আইডল। মা যখন এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তখন আমার কোনো দুঃখবোধ ছিল না। বরং আমি অনেক খুশি হয়েছি।’

নুহাশ আরও বলেন, ‘আমি মায়ের সঙ্গেই ছিলাম এ ব্যাপারে। তাদের জন্য সকলের কাছে দোয়া চাচ্ছি। আমি নিজে থেকে মায়ের বিয়ে দিয়েছি। আর এটা লুকানোর কিছু নেই। সামনে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানও হবে। এটা নারীদের জন্য নতুন একটা দ্বার উম্মোচন হলো বলতে পারেন।’

জানা গেছে, গত অক্টোবরের শেষের দিকে কবি আফতাব আহমেদকে বিয়ে করেন গুলতেকিন। আফতাব আহমেদের সঙ্গে তার ব্যারিস্টার স্ত্রীর বিচ্ছেদ ঘটে ১০ বছর আগে। তাদের একমাত্র সন্তান লন্ডনে লেখাপড়া করছেন।

অন্যদিকে ২০০৩ সালে হুমায়ূন আহমেদের সঙ্গে গুলতেকিনের বিচ্ছেদ হয়। তাদের এক ছেলে ও তিন মেয়ে। হুমায়ূন আহমেদের মৃত্যুর সাত বছর পর বিয়ে করলেন তিনি।  আমাদেরসময়

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Close