সমগ্র বিশ্ব

নিঃশ্বাসজনিত রোগের প্রকোপ বেড়ে গেছে সিডনি

অস্ট্রেলিয়ার বৃহত্তম শহর সিডনির কাছে বিশাল একটি দাবানল শুরু হওয়ার পর পুরো শহর ধোঁয়ায় ছেয়ে গেছে। শহরজুড়ে নিঃশ্বাসজনিত রোগের প্রকোপ বেড়ে গেছে। উন্মুক্ত স্থানে খেলাধুলা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। সিএনএন।

দমকল কর্মীরা জানিয়েছেন, দাবালন নিয়ন্ত্রণে কয়েক সপ্তাহ লাগলেও ভারী বৃষ্টিপাত ছাড়া আগুন নেভানো সম্ভব হবে না।

এক মাস ধরে অস্ট্রেলিয়ার কয়েক হাজার দমকলকর্মী দাবানলের বিরুদ্ধে লড়াই করে যাচ্ছে, শনিবার নিউ সাউথ ওয়েলস রাজ্যের দমকলকর্মীরা প্রায় ১০০টি দাবানলের বিরুদ্ধে লড়াই করছিল।

শুক্রবার সিডনির উত্তরে কয়েকটি দাবানল একত্র হয়ে বিশাল একটি দাবানলে পরিণত হয়ে আট লাখ ৩০ হাজার একরজুড়ে ছড়িয়ে পড়েছে।

নিউ সাউথ ওয়েলস রুরাল ফায়ার সার্ভিস বলেছে, এ আগুন বন্ধ করতে বন্যা সৃষ্টির মতো বৃষ্টি দরকার। এটি নেভাতে বহু সপ্তাহ লেগে যাবে।

অস্ট্রেলিয়ায় গ্রীষ্মের উত্তপ্ত সময়ে দাবানল নিয়মিত ঘটনা। এগুলো সাধারণত ডিসেম্বরে শুরু হয়। কিন্তু চলতি বছর অনেক আগেই শুরু হয়েছে। এর কারণ হিসেবে বাড়তে থাকা তামপাত্রা, শুষ্ক আবহাওয়া ও অগ্নিসংযোগকে দায় দেওয়া হচ্ছে।

তিন বছর ধরে চলা খরার কারণে অস্ট্রেলিয়ার অধিকাংশ এলাকা অত্যন্ত শুষ্ক হয়ে আছে।

গত সপ্তাহে এক হাজার ১৪০ জন লোক শ্বাসজনিত সমস্যা বা অ্যাজমার চিকিৎসা নিতে এসেছে। নিউ সাউথ ওয়েলসের স্বাস্থ্য বিভাগ বলছে, এ সংখ্যা স্বাভাবিক সপ্তাহগুলোর তুলনায় এক চতুর্থাংশ বেশি।

দাবানলে এ পর্যন্ত ছয়জন মারা গেছে, প্রায় ৭০০ বাড়ি পুড়ে ছাই হয়েছে এবং লাখ লাখ একর ভূমি পুড়ে বিরানভূমিতে পরিণত হয়েছে।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Close