সমগ্র বিশ্ব

অস্ট্রেলিয়ায় তিন শিশুসহ নিহত ৪

অস্ট্রেলিয়ার কুইন্সল্যান্ড অঙ্গরাজ্যের ব্রিসবেন শহরে একটি গাড়িতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় তিন শিশুসহ চারজন নিহত হয়েছেন। শিশু তিনটির বয়স দশ বছরের কম। অগ্নিকাণ্ডের পর জরুরি সেবা বিভাগের কর্মীরা গাড়ির ভেতর থেকে তাদের লাশ উদ্ধার করেন। কুইন্সল্যান্ড পুলিশের বরাতে এ খবর জানিয়েছে বিবিসি।

যারা দুর্ঘটনার শিকার হয়েছেন তাদের এক আত্মীয়ও মারা গেছেন। এছাড়া মারাত্মকভাবে দগ্ধ এক নারীকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তার অবস্থাও এখন আশঙ্কাজনক। ব্রিসবেন শহরের উত্তরে অবস্থিত ক্যাম্প হিলের যে রাস্তায় দুর্ঘটনাটি ঘটেছে সেই স্থানটিকে ‘অপরাধস্থল’ হিসেবে চিহ্নিত করে তা ঘিরে রেখেছে পুলিশ।

পুলিশের গোয়েন্দা পরিদর্শক থম্পসন জানান, গাড়িতে যারা ছিলেন তারা স্থানীয় বাসিন্দা। বুধবার স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে আটটার দিকে গাড়িতে আগুন লাগার বিষয়টি জানতে পারেন। রাস্তার সংলগ্ন বাসিন্দরা অস্ট্রেলিয়ান গণমাধ্যমকে বলেছেন, এক নারীকে গাড়ি থেকে লাফিয়ে বের হতে দেখেছেন তারা। তখন তার শরীরে ছিল আগুন।

থম্পসন বলেন, ‘এটা খুব ভয়ংঙ্কর একটা দৃশ্য। তদন্ত কেবল শুরু হয়েছে। পুলিশ যখন ঘটনাস্থলে পৌঁছায় পুরো গাড়িটি জ্বলছিল।’ চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, তারা ওই রাস্তার এক পথিককে চিকিৎসা দিচ্ছে। গাড়িটি আগুন লাগতে দেখে তিনি তা বাঁচাতে গিয়ে দগ্ধ হন। তার মুখের অনেকটা অংশ পুড়ে গেলে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

পুলিশ বলছে, যারা দুর্ঘটনার শিকার হয়েছেন তাদের পরিচয় সম্পর্কে এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি। এছাড়া এটা কোনো পারিবারিক সহিংসতার ঘটনা কিনা এ নিয়ে জিজ্ঞাসা করা হলে পুলিশের পক্ষ থেকে মন্তব্য করতে রাজি হননি কেউই। কুইন্সল্যান্ডের পুলিশ বিষয়ক মন্ত্রী, প্রাদেশিক পার্লামেন্টকে ভয়ঙ্কর এই দুর্ঘটনার খবর জানিয়েছেন।

অস্ট্রেলিয়ান প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন বলেছেন, ‘যারা এই দুঃখজনক সময়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছেন তাদের পরিবার ও সম্প্রদায়ের সঙ্গে রয়েছেন তিনি এবং জরুরি প্রতিক্রিয়াকারীরা কীভাবে বিপর্যয়কর পরিবেশের মুখোমুখি হবে, সে বিষয়টি তিনি সর্বদা পর্যবেক্ষণ করবেন বলে জানিয়েছেন। শোক জানিয়েছেন অন্যান্য আইনপ্রণেতারাও।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Close