ইংল্যান্ডওয়েলস

ব্রিটেনের ওয়েলসে শুক্রবার থেকে লকডাউন

করোনাভাইরাসের সংক্রমন বৃদ্ধি পেতে থাকায় আগামী শুক্রবার থেকে ৯ নভেম্বর পর্যন্ত লকডাউনে যাচ্ছে ওয়েলস। এই লকডাউনের নাম দেয়া হয়েছে ‘ফায়ারব্রেক‘।
এর ফলে বাসিন্দাদের ঘরেই অবস্থান করতে হবে। পাব, রেস্তোঁরা এবং অপ্রয়োজনীয় পণ্যের দোকান বন্ধ রাখতে হবে।

প্রাইমারী স্কুলগুলো হাফ টার্ম হলিডের পর আবারো চালু হবে, কিন্তু ইয়ার সেভেন এবং ইয়ার এইট এর সেকেন্ডারী স্কুলের ছাত্র-ছাত্রীদের ফায়ারব্রেক নিয়মের অধিনেই স্কুলে যেতে পারবে।
নতুন নিয়মে বাড়ীর ভেতরে কিংবা বাইরে কারো সাথে দেখা স্বাক্ষাত করা যাবে না।

লেজার সেন্টার, কমিউনিটি সেন্টার, লাইব্রেরি এবং রিসাইকেলিং সেন্টারও বন্ধ থাকবে। জানাযা এবং বিবাহ অনুষ্ঠান ব্যতিত উপাসনার স্থানগুলিও বন্ধ রাখতে হবে।
আজ সোমবার ওয়েলস সরকারের পক্ষ থেকে এই ঘোষণা দেয়া হয়। এর কারন হিসেবে বলা হয়েছে, হাসপাতালগুলোতে রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি এবং দেশটির ১৭টি স্থানীয় কাউন্সিলে লকডাউনের কারন উল্লেখ করা হয়েছে।

গত এক সপ্তাহে প্রতি এক লাখে ১৩০ জন আক্রান্ত হচ্ছেন। একই সাথে গত ৯ অক্টোবর থেকে ১৫ অক্টোবর পর্যন্ত ৪,১২৭ জন আক্রান্ত হয়েছেন।
ব্যবসায়ীদের সহায়তা ওয়েলস সরকার ৩০০ মিলিয়ন পাউন্ডের প্যাকেজ ঘোষণা করেছে।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Close