ধর্মসমগ্র বিশ্ব

মসজিদুল হারামে এশার নামাজে এক সাথে ৮ হাজার মুসল্লি

করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ায় ফের মুখরিত হয়ে উঠেছে পবিত্র কাবা প্রাঙ্গণ।

রোববার মসজিদুল হারামে একসঙ্গে ৮ হাজার মুসল্লি এশার নামাজ আদায় করেছেন। আর পাঁচ ওয়াক্ত নামাজে অংশ নিয়েছে কমপক্ষে ৪০ হাজার লোক।

সৌদি প্রেস এজেন্সি জানিয়েছে, রোববার প্রায় ১৫ হাজার মানুষ ওমরাহ পালন করেছেন। বৈশ্বিক মহামারী করোনার কারণে মসজিদুল হারামে বৃহৎ জামাতে নামাজ আদায় সাময়িক স্থগিত করা হয়েছিল।

এরপর পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ায় রোববার সাধারণ মুসল্লিদের জন্য পুনরায় তা উন্মুক্ত করা হয়। এর মধ্য দিয়েই এদিন থেকে ওমরার দ্বিতীয় ধাপ শুরু হয়।

হারামাইনের প্রশাসন জানিয়েছে, নিরাপদ ব্যবস্থাপনায় হারাম শরীফে ওমরাহ পালনকারী ও সাধারণ মুসল্লিদের অভ্যর্থনা জানানো হচ্ছে।

আরব নিউজ বলছে, ওমরার দ্বিতীয় ধাপে মসজিদুল হারামে গড়ে প্রতিদিন ৪০ হাজার মুসল্লি নামাজ পড়তে পারবেন। ওমরাহ পালন করতে পারবেন ১৫ হাজার মানুষ।

যারা নামাজ পড়তে বা ওমরাহ পালন করতে মসজিদুল হারামে যাবেন, তাদের অবশ্যই পূর্ণ স্বাস্থ্যবিধি মেনে এবং মুখে সবসময় মাস্ক পরতে হবে বলে জানিয়েছে হারাম প্রশাসন।

মসজিদুল হারামের পাশাপাশি মসজিদে নববীও রোববার থেকে সাধারণ মুসল্লিদের জন্য উন্মুক্ত করা হয়েছে।

হারামাইন শারিফাইনের ফেসবুক পেইজে প্রচার করা মসজিদে নববীতে গমনকারী কয়েকজন মুসল্লির ছবি দেখা যায়। দীর্ঘদিন পরে মসজিদে নববীতে যেতে পেরে তারা আবেগাপ্লুত হয়েছেন।

বৈশ্বিক মহামারী করোনার সংক্রমণ ও বিস্তার রোধে সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করা হচ্ছে এবার ওমরায়। কোনো ওমরাহ পালনকারী হঠাৎ অসুস্থ হয়ে গেলে তার জন্য তাৎক্ষণিক চিকিৎসার ব্যবস্থা করেছে দেশটি।

শেখ আবদুর রহমান আস-সুদাইস বলেছেন, হজযাত্রীদের সেবা করতে পারা আমাদের জন্য সৌভাগ্যের বিষয়।

প্রসঙ্গত, করোনার সংক্রমণ ও বিস্তার রোধে দীর্ঘ ছয় মাস হজ ও ওমরাহ পালনে নিষেধাজ্ঞা থাকার পরে নির্দিষ্ট কিছু নিয়ম মেনে ৪ অক্টোবর থেকে হাজীদের জন্য হারামাইন শারিফাইনকে উন্মুক্ত করা হয়।

মোট তিন ধাপে এবারের ওমরাহ পালিত হচ্ছে। প্রথম দুটি ধাপের পর তৃতীয় ধাপে গিয়ে ওমরাহ পালন স্বাভাবিক করা হবে।

প্রথম ধাপে একজন ওমরাহ পালনকারী মাত্র তিন ঘণ্টা সময় পেয়েছেন। অর্থাৎ নির্ধারিত এলাকায় প্রবেশ ও ওমরাহ পালন শেষে বের হওয়া পর্যন্ত তিন ঘণ্টা সময় বরাদ্দ ছিল।

প্রথম ধাপে প্রতিদিন ছয় হাজার মানুষ ওমরাহ পালন করেছেন। ওমরাহ পালনের দ্বিতীয় ধাপ শুরু হল গতকাল থেকে। মসজিদুল হারামের ধারণক্ষমতার ৭৫ শতাংশ তথা ১৫ হাজার লোক ওমরাহ পালন করতে পারবেন এই ধাপে।

তৃতীয় ধাপ শুরু হবে আগামী ১ নভেম্বর থেকে। তখন বিদেশি নাগরিকরাও ওমরাহ পালনের অনুমতি পাবেন। এ ধাপে একসঙ্গে ২০ হাজার এবং প্রতিদিন ৬০ হাজার লোক ওমরাহ পালন করতে পারবেন।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Close