প্রবাসে সফল বাঙালী

ভিয়েনায় বন্দুক হামলার ঘটনায় বাংলাদেশিসহ ১৪ জন গ্রেপ্তার

অস্ট্রিয়ার ভিয়েনায় সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় বাংলাদেশি দ্বৈত নাগরিকসহ ১৪ জনকে গ্রেপ্তার করেছে দেশটির পুলিশ। গত মঙ্গলবার তাদের গ্রেপ্তার সবারই অভিবাসনের ইতিহাস আছে। মোবাইল ফোনের ফুটেজ দেখে ১৮ থেকে ২৮ বছর বয়সী এ চৌদ্দজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কার্ল নেহামার এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

কার্ল নেহামার বলেন, হামলার ঘটনায় গ্রেপ্তারকৃতদের কাছ থেকে পাওয়া তথ্য-উপাত্তগুলো বিশ্লেষণ করা হচ্ছে।

ভিয়েনার পুলিশ প্রধান গেরহার্ড পুয়ার্স্টেল জানান, বাংলাদেশ, উত্তর ম্যাসেডোনিয়া, তুরস্ক বা রাশিয়ার দ্বৈত নাগরিকসহ মোট ১৪ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

এদিকে ঘটনার দিন পুলিশের গুলিতে যে ব্যক্তি মারা গেছে, তিনিও অস্ট্রিয়া ও উত্তর ম্যাসেডোনিয়ার দ্বৈত নাগরিক। নিচে এলাপাতাড়ি গুলি চালানোর কিছুক্ষণ পর পুলিশের গুলিতে ওই ব্যক্তি মারা যান। তার জন্ম ভিয়েনায়।

গত সোমবারের ওই হামলার ঘটনার দায় স্বীকার করেছে জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেট (আইএস)। নিহত তরুণ আইএস’র সদস্য। তিনি দোষী সাব্যস্ত হয়ে কারাগারে ছিলেন।

গত সোমবার এক বন্দুকধারী ভিয়েনায় গুলি চালিয়ে চারজনকে হত্যা করে। আইএস’র পরে পক্ষ থেকে দায় স্বীকার করে টেলিগ্রামে ছবিসহ একটি বিবৃতি প্রকাশ করা হয়। এ ছাড়া ফুটেজ দেখেও ভিয়েনার ওই বন্দুকধারীকে নিশ্চিত করা হয়। এ নিয়ে অস্ট্রিয়ার গোয়েন্দা বাহিনী নানা বিভ্রান্তির মধ্যে ছিল।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Close