খেলাধুলা

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় বললেন আমির

খবরটা শেষ পর্যন্ত সত্যি-ই। সকাল থেকে একটি খবর পাকিস্তানের স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলো প্রচার করছিল। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে আর খেলবেন না মোহাম্মদ আমির। অবশেষে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড বিবৃতি দিয়ে জানিয়ে দিলো ঘটনার সত্যতা। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় বলে দিয়েছেন ২৯ বছর বয়সী এই পেসার।

আমিরের এমন সিদ্ধান্তটা পুরোপুরি ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়ার ফসল। তিনি সরাসরি অভিযোগের তীর ছুড়েছেন পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) দিকে। দাবি করেছেন, তার প্রতি মানসিকভাবে অত্যাচার চালিয়েছে পিসিবি!

নিউজিল্যান্ড সফরের জন্য কোনওভাবে বিবেচনায় ছিলেন না আমির। আর এই বিষয়টি-ই তার চেতনাজাগ্রত করেছে বলে জানিয়েছেন তিনি, ‘আমি যদি সেই ৩৫ জনের পরিকল্পনায় না থাকি, তাহলে সেটি আমার ভবিষ্যতের জন্য সতর্কবার্তা। যে পরিবেশ আমার জন্য সৃষ্টি করা হযেছে। আমার মনে হয় না এই ম্যানেজমেন্টের অধীনে আমি আর ক্রিকেট খেলতে পারবো। আমি এই মুহূর্তে ক্রিকেটটা ছেড়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

তিনি স্পট ফিক্সিংয়ে নিষিদ্ধ থাকাকালীন সময়ের অভিজ্ঞতার কথাও তুলে আনেন এর পর, ‘আমি ২০১০ সাল থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত অনেক মানসিক নির্যাতন সহ্য করেছি। এর পরও আমাকে নির্যাতন সহ্য করতে হয়েছে। পিসিবি বলে আসছে, আমার প্রতি তারা নাকি অনেক বিনিয়োগ করেছে।’

৩৬টি টেস্ট, ৬১টি ওয়ানডে ও ৫০টি টি-টোয়েন্টি খেলা আমির গত বছরই টেস্ট থেকে অবসর নিয়েছিলেন। তখন বলেছিলেন, পুরোপুরি রঙিন পোশাকের ক্রিকেটে মনোযোগ দিতে চান তিনি। তার অবসর প্রসঙ্গে পিসিবি বলেছে, ‘পিসিবির প্রধান নির্বাহী ওয়াসিম খান আমিরের সঙ্গে এ বিষয়ে কথা বলেছে। ২৯ বছর বয়সী এই ক্রিকেটার নিশ্চিত করেছেন, যে তার আর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলার ইচ্ছা নেই। তাই ভবিষ্যতে তাকে যেন আন্তর্জাতিক ম্যাচগুলোতে বিবেচনায় নেওয়া না হয়। এটা তার ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত, যার প্রতি পিসিবির শ্রদ্ধা আছে। তাই পিসিবি এ মুহূর্তে এ বিষয়ে কোনও মন্তব্য করবে না।’

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Close