সমগ্র বিশ্ব

চীন সরকারের সমালোচনার পর ‘নিখোঁজ’ আলিবাবা’র প্রতিষ্ঠাতা

চীনের ধনকুবের এবং প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান ‘আলিবাবা’র প্রতিষ্ঠাতা জ্যাক মা দুই মাস ধরে ‘নিখোঁজ’ রয়েছেন। আর তাতেই এ নিয়ে ছড়িয়েছে জল্পনা। কারণ, সম্প্রতি চীনা সরকারের বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে মুখ খুলেছিলেন জ্যাক মা। এরপর থেকে প্রকাশ্যে আর দেখা যায়নি তাকে। গতকাল রোববার এ খবর জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ডেইলি মেইল।

গত অক্টোবরে চীনা সরকারের কড়া সমালোচনা করেন জ্যাক মা। তিনি বলেছিলেন, সরকারের কর্তারা সুদখোরের মতো কথা বলেন। চীনের রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকগুলোর নানা নীতিরও সমালোচনা করেন এ বিলিয়নিয়ার। তার মতে, চীনে ব্যাংকগুলো যেভাবে চলছে, তাতে সময়ের সঙ্গে তাল মেলানো যায় না। এজন্য ব্যাংকিং খাতে ব্যাপক সংস্কারের দাবি জানান জ্যাক মা।

বলা হচ্ছে, তার ওই বক্তব্যেই অসন্তুষ্ট হয় শি চিনপিং সরকার। এর পরপরই আলিবাবার নানা ব্যবসার ওপর বিধিনিষেধ আসতে শুরু করে।

গত নভেম্বরে ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল জানায়, জ্যাক মা’র বিদেশভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে চীন সরকার। বড়দিনের ঠিক আগে আলিবাবা গ্রুপ হোল্ডিং নিয়ে তদন্তের আদেশ দেওয়া হয়। জ্যাক মা’র আরেক কোম্পানি অ্যান্ট গ্রুপের ব্যবসাও গুঁটিয়ে আনতে বলা হয়।

সম্প্রতি এই ব্যবসায়ী নিজের শো ‘আফ্রিকাস বিজনেস হিরোজ’ এ বিচারক হিসেবে থাকার কথা ছিল। কিন্তু সেখানেও তাকে দেখা যায়নি। এমনকি তার ছবিও সরিয়ে ফেলা হয়েছে ওই শো থেকে। এ কারণে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে প্রশ্ন উঠেছে শি চিনপিং সরকার জ্যাক মাকে গৃহবন্দী করে রেখেছে কিনা।

জ্যাক মা চীনের অন্যতম ধনী ব্যক্তি। সাম্প্রতিক বছরগুলিতে জাতিসংঘ এবং গোটা বিশ্বে তার দাতব্য কার্যক্রম আলাদাভাবে পরিচিতি পেয়েছে।

 

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Close