সোনার বাংলাদেশ

দেশে ৭ দিনে টিকা নিলেন ৯ লাখ মানুষ

দেশে এ পর্যন্ত করোনার টিকা নিয়েছেন ৯ লাখ ৬ হাজার ৩৩ জন। তাদের মধ্যে পুরুষ ৬ লাখ ২৬ হাজার ৪৬৯ জন এবং নারী দুই লাখ ৭৯ হাজার ৫৬৪ জন। টিকা গ্রহণকারীদের মধ্যে সামান্য পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দেয় ৪২৬ জনের, যা তুলনামূলক খুবই কম।

রবিবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) স্বাস্থ্য অধিদফতরের নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, রবিবার সকাল ৯টা থেকে দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত টিকা নিয়েছেন এক লাখ ৬৯ হাজার ৩৫৩ জন। তাদের মধ্যে পুরুষ এক লাখ ১২ হাজার ৮৪৮ জন, আর নারী ৫৬ হাজার ৫০৫ জন। তবে রবিবারে টিকা গ্রহীতার সংখ্যা শনিবারের চেয়ে কম। শনিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) টিকা নিয়েছেন এক লাখ ৯৪ হাজার ৩৭১ জন।

অধিদফতর জানায়, রবিবার সারা দেশে টিকা গ্রহণকারী এক লাখ ৬৯ হাজার ৩৫৩ জন। এরমধ্যে ঢাকা বিভাগে নিয়েছেন ৪৫ হাজার ৯৪ জন, ময়মনসিংহ বিভাগে সাত হাজার ৩৫৭ জন, খুলনা বিভাগে ১৯ হাজার ৮০২ জন, বরিশাল বিভাগে ৯ হাজার ১৯৮ জন, সিলেট বিভাগে ১৩ হাজার ১৯৬ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ৩৯ হাজার ৭০৩ জন, রাজশাহী বিভাগে ১৮ হাজার ৯৬৫ জন ও রংপুর বিভাগে ১৫ হাজার ২১৮ জন।

অপরদিকে, ঢাকা মহানগরীর ৪৬টি হাসপাতালে রবিবার টিকা নিয়েছেন ২২ হাজার ৯৮২ জন। এরমধ্যে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে সবচেয়ে বেশি এক হাজার ৩২৪ জন টিকা নিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, গত ৭ ফেব্রুয়ারি সারা দেশে জাতীয়ভাবে করোনার টিকা দেওয়া শুরু হয়। অক্সফোর্ড অ্যাস্ট্রাজেনেকার তৈরি কোভিশিল্ড টিকা ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউট থেকে কিনেছে বাংলাদেশ। গত ২৫ জানুয়ারি ৫০ লাখ টিকা আসে দেশে। তার আগে ২১ জানুয়ারি ভারত সরকারের দেওয়া উপহারের ২০ লাখ টিকা আসে।

টিকা আসার পর গত ২৭ জানুয়ারি দেশে প্রাথমিকভাবে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে ২৬ জনকে টিকা দেওয়া হয়। পরের দিন কুর্মিটোলাসহ রাজধানীর আরও চারটি হাসপাতালে মোট ৫৬৭ জনকে টিকা দেওয়া হয়।

তাদের সফল পর্যবেক্ষণের  পর ৭ ফেব্রুয়ারি সারা দেশে টিকাদান কর্মসূচি শুরু হয়।

দেশে জাতীয়ভাবে করোনার টিকাদান কার্যক্রমের প্রথম দিনে (৭ ফেব্রুয়ারি) টিকা নেন ৩১ হাজার ১৬০ জন, দ্বিতীয় দিন (৮ ফেব্রুয়ারি) ৪৬ হাজার ৫০৯ জন, তৃতীয় দিন (৯ ফেব্রুয়ারি) এক লাখ এক হাজার ৮২ জন, চতুর্থ দিন (১০ ফেব্রুয়ারি) এক লাখ ৫৮ হাজার ৪৫১ জন, পঞ্চম দিন (১১ ফেব্রুয়ারি) ২ লাখ ৪ হাজার ৫৪০ জন। ১২ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার সাপ্তাহিক ছুটি হওয়ায় টিকাদান কার্যক্রম বন্ধ ছিল। শনিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) টিকা নিয়েছেন এক লাখ ৯৪ হাজার ৩৭১ জন

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Close