সমগ্র বিশ্ব

ফাইজার ভ্যাকসিনের তথ্য হ্যাক করতে চেয়েছিল উত্তর কোরিয়া

ফাইজারের কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনের তথ্য হ্যাক করতে চেয়েছিল উত্তর কোরিয়া। এজন্য প্রতিষ্ঠানটির তথ্যভাণ্ডারে হানা দিয়েছে দেশটির হ্যাকাররা। টিকা ছাড়াও করোনার চিকিৎসা সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য হাতিয়ে নিতে চেয়েছিল তারা। মঙ্গলবার এক ব্রিফিংয়ে দক্ষিণ কোরিয়ার আইনপ্রণেতারা এ তথ্য জানান।

দক্ষিণ কোরীয় গোয়েন্দা সংস্থার কাছ থেকে ব্রিফিং পাওয়ার পরই বিষয়টি সম্পর্কে সাংবাদিকদের অবহিত করেন আইনপ্রণেতারা।

২০২০ সালের নভেম্বরে মাইক্রোসফট করপোরেশন জানায়, রাশিয়ার পাশাপাশি উত্তর কোরিয়ার হ্যাকাররাও করোনা টিকা নিয়ে কাজ করছে এমন সাতটি খ্যাতনামা প্রতিষ্ঠানকে টার্গেট করেছে।

গত ডিসেম্বরে ফাইজারের জার্মান অংশীদার বায়োএনটেক জানায়, তাদের টিকা সংক্রান্ত নথিগুলোকে সাইবার হামলার লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত করা হয়েছে।

এদিকে চীনে নকল করোনাভাইরাস ভ্যাকসিন বিক্রির একটি চক্র শনাক্ত করা হয়েছে। তারা কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনের ভায়ালে স্যালাইন ও মিনারেল ওয়াটার ভর্তি করে বিক্রি করতো। লোকজনের কাছ থেকে কয়েক কোটি ডলার হাতিয়ে নেওয়া ওই চক্রটির মূল হোতাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিকে কং হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে। সে স্বীকার করেছে, ৫৮ হাজার নকল ভায়াল তৈরির আগে তারা আসল ভ্যাকসিনের মোড়ক নিয়ে কাজ করেছে। কিছু ভেজাল ভ্যাকসিন বিদেশেও পাচার করা হয়েছে। তবে কোন দেশে পাঠানো হয়েছে তা জানা যায়নি।

চীনে নকল ভ্যাকসিন বিক্রির দায়ে অর্ধশতাধিক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

নকল ভ্যাকসিন বিক্রির ক্ষেত্রে দাবি করা হয়, আসল উৎপাদনকারীদের কাছ থেকে ঘনিষ্ঠ চ্যানেলের মাধ্যমে এসব সংগ্রহ করা হয়েছে। আরেকটি ঘটনায় হাসপাতালে চড়া দামে নকল ভ্যাকসিন বিক্রির খবর পাওয়া গেছে।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Close