ইংল্যান্ডটপ স্টোরিজ

অক্সফোর্ডের টিকা নেয়ার পর রক্তজমাটে নারীর মৃত্যু, মামলা

অস্ট্রাজেনেকা-অক্সফোর্ডের টিকা নেওয়ার পর রক্তজমাট বেঁধে ৩৮ বছর বয়সী এক নারীর মৃত্যুর পর মামলা করেছে তার পরিবার।

ফ্রান্সের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে এই অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। শুক্রবার এক আইনজীবীর বরাতে বার্তা সংস্থা এএফপি এমন খবর দিয়েছে।

মামলায় কোনো ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানকে আসামি করা হয়নি। যখন কোনো ঘটনায় অস্পষ্টতা থাকে, তখন ফ্রান্সে এভাবে অভিযোগ করা যায়।

পরিবারটির আইনজীবী এতিয়েন্না বইত্তিন বলেন, এ ঘটনায় অতিরিক্ত তদন্তের জন্যই অভিযোগটি দায়ের করা হয়েছে।

‘অভিযোগে কারও নাম উল্লেখ করা হয়নি। কারণ হত্যাকাণ্ডের দায়ে কোনো ব্যক্তির বিরুদ্ধে অভিযোগ করার মতো কিছু আমাদের হাতে নেই।’

তিনি বলেন, আমরা কেবল এই ঘটনার একটা ব্যাখ্যা দাবি করছি—কোনো জবাবদিহিতা চাওয়া হচ্ছে না। কী কারণে ওই নারীর মৃত্যু হয়েছিল, তা পরিষ্কার হতে চাচ্ছি।

এই আইনজীবী বলেন, টিকা নেওয়ার পর থেকে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হতে শুরু করে। পরে মস্তিষ্কে রক্তজমাট বেঁধে গত ২৯ মার্চ তিনি মারা যান।

অল্প-কয়েকদিন স্থগিত রাখার পর ফ্রান্সসহ বেশ কয়েকটি ইউরোপীয় দেশ আবার অক্সফোর্ড-অস্ট্রাজেনেকার টিকা দেওয়া শুরু করেছে।

তরুণদের মধ্যে রক্তজমাটের ঘটনার পর ৫৫ বছরের বেশি বয়সীদের জন্য এই টিকা দেওয়ার পরামর্শ দিয়েছে ফরাসি ঔষধ নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ।

আর জার্মানির ভ্যাকসিন কমিশন জানিয়েছে, কেবল ষাট কিংবা তার চেয়ে বেশি বয়সীদের ক্ষেত্রে এই টিকা নেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে।

এদিকে যুক্তরাজ্যে নতুন করে ২৫ জনের বিরল রক্ত জমাট বাঁধার ঘটনা ঘটেছে। যার সঙ্গে অস্ট্রাজেনেকা-অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের করোনার টিকার সম্ভাব্য যোগসাজশ রয়েছে।

এর আগে ব্রিটিশ-সুইডিশ কোম্পানির এই টিকা নিয়ে বেশ কয়েকটি ইউরোপীয় দেশ সতর্কতামূলক পদক্ষেপ নিয়েছিল। ব্লুমবার্গ, রয়টার্স ও এনডিটিভি এমন খবর দিয়েছে।

ব্রিটেনের ঔষধ ও স্বাস্থ্যসেবা নিয়ন্ত্রণ সংস্থা বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, গত ২৪ মার্চ থেকে রক্তজমাটের ঘটনা বেড়ে ৩০ জনে দাঁড়িয়েছে। এই টিকা নেওয়ার ক্ষেত্রে ঝুঁকির চেয়ে সুবিধাই বেশি।

খবরে বলা হয়, এ সময়ে এক কোটি ৮১ লাখ ডোজ দেওয়া হয়েছে। তাদের মধ্যে ত্রিশ জনের রক্তজমাট বাঁধার ঘটনা ঘটেছে। এর আগে গত ১৮ মার্চ এক কোটি ১০ লাখের মধ্যে পাঁচটি রক্তজমাটের ঘটনা পাওয়া গেছে।

নতুন প্রতিবেদন অনুসারে, ব্রিটেনে গড়ে প্রতি ছয় লাখে একজনের রক্তজমাটের ঘটনা ঘটেছে। তবে ফাইজার-বায়োএনটেকের টিকা দেওয়ার পর এমন কোনো ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি।

ইউনিভার্সিটি কলেজ লন্ডনের নিউরোলজি ইনস্টিটিউটের ক্লিনিক্যাল নিউরোলজির অধ্যাপক ডেভিড ওয়ারিং বলেন, এ নিয়ে আরও গবেষণা দরকার। কীভাবে মস্তিষ্কের এই রক্তজমাটের ঘটনা ঘটছে, সেদিকে বেশি নজর দেওয়া দরকার। করোনাভাইরাসের বিপরীতে টিকাদানের সফলতা কতটা শক্তিশালী, তা প্রমাণ করতে হবে।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Close