টপ স্টোরিজসমগ্র বিশ্ব

হামাস প্রধানকে হত্যার চেষ্টা চালাচ্ছে ইসরায়েল

ফিলিস্তিনের স্বাধীনতাকামী সংগঠন হামাসের কমান্ডারের বাড়ি লক্ষ্য করে হামলা চালানোর কথা জানিয়েছে ইসরায়েল। দশম দিনের মতো অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় অভিযান অব্যাহত রাখার মধ্যে এই দাবি করলো ইসরায়েল। দেশটি বলছে, হামাসের সামরিক প্রধান মোহাম্মদ দাইফকে হত্যা করতে বেশ কয়েকবার চেষ্টা চালানো হয়েছে। গত রাতে একটি অ্যাপার্টমেন্ট লক্ষ্য করে চালানো হামলায় দুই ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

গাজায় ইসরায়েলি অভিযানে এখন পর্যন্ত ২১৯ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে। এরমধ্যে শতাধিক নারী ও শিশু রয়েছে। ইসরায়েলের দাবি, নিহতদের মধ্যে অন্তত দেড়শ সশস্ত্র যোদ্ধা রয়েছে। অবশ্য ফিলিস্তিনি স্বাধীনতাকামীদের মিলিটান্ট আখ্যা দিয়ে থাকে ইসরায়েল।

ইসরায়েলি সেনাবাহিনী জানিয়েছে, তাদের যুদ্ধবিমান হামাসের অবকাঠামো এবং কমান্ডারকে লক্ষ্য করে গাজায় হামলা অব্যাহত রেখেছে। বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, গাজার কেন্দ্রস্থলে একটি অ্যাপার্টমেন্ট ভবনে ৭০টিরও বেশি বিমান হামলা চালিয়েছে ইসরায়েল। এতে দুই হামাস সদস্য নিহত হয়েছে। গাজা উপত্যকার খান ইউনিসে হামাসের প্রশিক্ষণ শিবির লক্ষ্য করেও প্রায় ৫০টি হামলা চালানো হয়েছে।

বুধবার সকালেও অব্যাহত রয়েছে ইসরায়েলি হামলা। ইসরায়েলের প্রতিরক্ষা বাহিনী (আইডিএফ) মুখপাত্র ব্রিগেডেয়ার জেনারেল হিদাই জিলবারম্যান বলেন, ‘পুরো অভিযানজুড়েই আমরা মোহাম্মদ দাইফকে হত্যার চেষ্টা চালিয়েছি। আমরা তাকে হত্যার বেশ কয়েকবার চেষ্টা করেছি।’

হামাসের সামরিক শাখা আল কাসেম ব্রিগেডের প্রধান মোহাম্মদ দাইফ। বেশ কয়েকবারই হত্যাচেষ্টা থেকে বেঁচে গেছেন তিনি। ২০১৪ সালে গাজায় হামলার সময়েও তাকে হত্যার চেষ্টা করা হয়। তবে তিনি নেপথ্যেই থাকেন। তার অবস্থান কখনোই প্রকাশ করা হয় না।

ইসরায়েলি হামলার জবাবে ফিলিস্তিন থেকে রকেট ছোড়াও অব্যাহত রয়েছে। রাতভর ইসরায়েলের দক্ষিণাঞ্চল থেকে সতর্কতামূলক সাইরেনের শব্দ শোনা গেছে।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Close