ইংল্যান্ড

ব্রিটেনে ইউনিভার্সেল ক্রেডিটের অতিরিক্ত টাকা বন্ধ, শিশু দারিদ্র্যতা বাড়ার আশঙ্কা রাশফোর্ডের

যুক্তরাজ্যে করোনা মহামারী চলাকালীন নিম্নআয়ের মানুষকে সপ্তাহে অতিরিক্ত ২০ পাউন্ড করে মাসে ৮০ পাউন্ড ইউনিভার্সেল ক্রেডিট দিয়ে আসছিলো সরকার। যা গত (৩০ সেপ্টম্বর) শেষ হয়েছে। গত মাস থেকে প্রতি মাসে অতিরিক্ত ৮০ পাউন্ড ইউনিভার্সেল ক্রেডিট বন্ধ করার ফলে শিশু দারিদ্র্যতা বাড়ার আশঙ্কার কথা জানিয়ে তা চালুর দাবি জানিয়েছেন যুক্তরাজ্যের ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড তারকা মার্কাস রাশফোর্ড। ম্যানচেষ্টার বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সম্মানসূচক ডক্টরেট গ্রহণকালে শিশু ক্ষুধা বন্ধ করার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেছেন, সংকটের সময় চালু করা টাকা বন্ধ করার ফলে দেশটির শিশু দারিদ্র্যতা একজন থেকে তিনজন বেড়ে যেতে পারে। ইংল্যান্ডের এই ফরোয়ার্ড বলেন, বর্তমান পরিস্থিতি নিজেকে মনে করিয়ে দেয়, যখন আমি ছোট ছিলাম।
তারকা ফুটবলার রাশফোর্ডের এই বক্তব্য সমর্থন করে লেবার নেতা স্যার কেয়ার স্টারমার বলেছেন, রাশফোর্ড খুব শক্তিশালী মন্তব্য করেছেন, এই জন্য তিনি প্রশংসা পাওয়ার দাবিদার। লেবার নেতা আরো বলেন, সরকার কার্যতভাবে দেশে দারিদ্র্যতা চালু করেছে। রাশফোর্ডের এই বক্তব্য এমন সময় এসেছে, যখন অতিরিক্ত মাসে ৮০ পাউন্ড বন্ধ হওয়ার সাথে সাথে বর্তমানে দেশটিতে বেড়েছে বেশির ভাগ জিনিষপত্রের দাম। শুধু এখানেই শেষ নয়, বেড়েছে গ্যাস, বিদ্যুত, কাউন্সিল ট্যাক্স, গাড়িভাড়া।
যা নিম্ন আয়ের মানুষের জন্য মড়ার ওপর খাঁড়ার ঘা হয়ে দাঁড়িয়েছে। ম্যানচেষ্টার বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অনারারি সম্মানসূচক ডক্টরেটপ্রাপ্ত সর্বকনিষ্ঠ ব্যক্তি হচ্ছেন রাশফোর্ড। ইংল্যান্ড ও ম্যানচেষ্টারের এই ইউনাইটেড এই তারকা গত বছর প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনকে বিনামূল্যে স্কুলের খাবারের জন্য ইউ-টার্ন করতে বাধ্য করছিলেন। সরকার বলছে মহামারির কঠিন সময়ে তা চালু করা হয়েছিলো।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Close