ইংল্যান্ড

হুইল চেয়ার জটিলতায় ক্ষমা চাইলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী

জাতিসংঘের জলবায়ু সম্মেলন কপ২৬ এ ইসরায়েলের এক মন্ত্রী হুইলচেয়ার নিয়ে প্রবেশ করতে ব্যর্থ হওয়ায় ক্ষমা চেয়েছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। গত সোমবার গ্লাসগোতে বাইরে দুই ঘণ্টা অপেক্ষা করেও সম্মেলনস্থলে প্রবেশ করতে ব্যর্থ হয়ে ৮০ কিলোমিটার দূরে নিজের হোটেলে ফিরতে বাধ্য হন ইসরায়েলের জ্বালানিমন্ত্রী কারিন এলহারার।

পরে ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী নাফতালি বেন্নেতের সঙ্গে এক পূর্ব নির্ধারিত বৈঠকে অংশ নেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। ওই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন ইসরায়েলের জ্বালানিমন্ত্রী কারিন এলহারার। সেই সময় কপ২৬ এ যোগ না দিতে পারায় ক্ষমা চান ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী।

ওই ঘটনাকে দুর্ভাগ্যজনক আখ্যা দিয়ে তাতে দ্রুত হস্তক্ষেপ করায় ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী নাফতালি বেন্নেত। এই ঘটনাকে সবার প্রবেশাধিকার রাখার গুরুত্ব শেখার সুযোগ হিসেবে বর্ণনা করেন তিনি।

পরে মঙ্গলবার হুইলচেয়ারে করেই জলবায়ু সম্মেলনে যোগ দেন কারিন এলহারার। তিনি বলেন খুব সহজেই এদিন তিনি প্রবেশ করতে পেরেছেন।

এর আগে ব্রিটিশ পরিবেশমন্ত্রী জর্জ আস্টিস ইসরায়েলি মন্ত্রী এলহারারের সঙ্গে ঘটে যাওয়া ঘটনাটিকে দুঃখজনক আখ্যা দেন। তিনি বলেন, এই কারণে ব্রিটিশ সরকার ক্ষমা প্রার্থনা করছে।

গত সোমবার এলহারার ইসরায়েলি চ্যানেল ১২কে বলেন তিনি জলবায়ু সম্মেলনস্থলে যেতে পারেননি সেখানে যাওয়ার একমাত্র উপায় ছিলো হয় হেঁটে যাওয়া নয়তো হুইলচেয়ারের অনুপযোগী একটি শাটলে চড়া। তার কার্যালয়ের তরফ থেকে টাইমস অব ইসরায়েলকে জানানো হয়, গ্লাসগোর সম্মেলনস্থলের বাইরে দুই ঘণ্টা অপেক্ষা করেন তিনি। পরে ঘটনাক্রমে তিনি ৮০ কিলোমিটার দূরে স্কটিশ রাজধানী এডিনবার্গে অবস্থিত হোটেলরুমে ফিরে যেতে বাধ্য হন।

সোমবার এক টুইট বার্তায় ইসরায়েলি মন্ত্রী কারিন এলহারার বলেন যে, এটা দুঃখজনক যে জাতিসংঘ তাদের আয়োজনে প্রবেশের সুযোগ দিতে পারেনি। ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী নাফতালি বেন্নেতের কার্যালয়ের এক দূত জানান, তারা আনুষ্ঠানিকভাবে আয়োজকদের কাছে অভিযোগ করেছেন।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Close